বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ

কঠিন শাস্তি পেতে পারে ব্রাজিল, কাটা হতে পারে পয়েন্ট

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২৩, ০৯:১১

ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওর মারাকানায় বিশ্বকাপ ফুটবলের বাছাইয়ে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচে সমর্থকদের মধ্যে গন্ডগোল হয়েছিল স্থানিয় সময় মঙ্গলবার রাতে। খেলার শুরুর আগেই আর্জেন্টিনার জাতীয় সংগীতের সময় হোম ম্যাচে ব্রাজিল সমর্থকরা মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। পুলিশ আর্জেন্টিনার সমর্থকদের বেধড়কভাবে পিটিয়েছে। সেই ঘটনায় ফিফা নড়েচড়ে বসেছে।

ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো তার ইন্সটাগ্রামে লিখেছেন, ‘ফুটবল মাঠে দাঙ্গা-হাঙ্গামার কোনো সুযোগ নেই। এটা খেলার জায়গা, হাঙ্গামা করার জায়গা না।’ খেপেছে দক্ষিণ আমেরিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিশেয়ন।  সমর্থকদের ওপর পৈশাচিক হামলায় কঠিন বার্তা দিয়েছে কনমেবল। তবে কঠিন ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে ফিফা। তদন্ত শুরু করেছে। ফিফার ডিসিপ্লিনারি কোড ১৭, এই ধারা মতে ম্যাচ আয়োজক ব্রাজিল ফুটবল কনফেডারেশন সেদিনের ঘটনার জন্য সম্পূর্ণ দায়ী।

ব্রাজিল কনফেডারেশনই এই ম্যাচের সমস্ত দায়বদ্ধতা নিতে বাধ্য। কারণ যে দেশে খেলা হয়, সেই দেশকে সম্পূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হয়। খেলার আগে-পরে, খেলা চলাকালীন। যা কিছুই ঘটুক, দায় ফেডারেশনের। তদন্তে দোষ প্রমাণিত হতে খুব বেশি সময় লাগবে না। কারণ ব্রাজিলের পুলিশ যেভাবে আর্জেন্টিনার সমর্থকদের পিটিয়ে রক্তাক্ত করে দিয়েছে, তা বিশ্ব মিডিয়ায় এসেছে। ব্রাজিলের সুবিধা হচ্ছে, আইনে শাস্তির কথা নির্দিষ্ট করে বলা হয়নি। যেমনটি হতে পারে, ব্রাজিলের খেলা হবে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে। কিংবা পয়েন্ট কেটে নেওয়া হতে পারে। আর যদি সুযোগ দেওয়াও হয়, তাহলে নিজ হোম ভেন্যুতে  দর্শক ছাড়া খেলতে হবে। কী শাস্তি হবে সেটা এখনই জানা যাচ্ছে না। ব্রাজিলকে অপেক্ষা করতে হবে আগামী বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। তখন বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ব্রাজিলের পরবর্তী ম্যাচ। 

মারাকানার মাঠে গ্যালারিতে ফেন্সিং নেই। দর্শক বসেন পাশাপাশি। এখানে কারো সঙ্গে সমস্যা হয় না কখনো। কিন্তু মঙ্গলবার রাতে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মহারণে ঘটল অপ্রীতিকর ঘটনা। দুই দলের সমর্থকদের হাতে ছিল পতাকা। ব্রাজিলের পতাকায় ছেয়ে গিয়েছিল আর্জেন্টিনার পতাকা। আর্জেন্টিনার টিওয়াইসি স্পোর্টসকে দেওয়া সাক্ষাত্কারে এক জন সমর্থক মার্টিন মুনোজ জানিয়েছেন, আর্জেন্টিনার জাতীয় সংগীত বাজার সময় ব্রাজিলের সমর্থকরা টিপ্পনী কাটছিল, দুয়োধ্বনি দিচ্ছিল। হাতের কাছে যা পেয়েছে, ছুড়ে মারে আমাদের দিকে। আর ব্রাজিল পুলিশকেও দেখলাম, তারা আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে সমর্থকদের দেখে দেখে লাঠিপেটা করছে।’

ইত্তেফাক/এএম