বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

দক্ষিণ ভারতের ছবিতে শাকিব!

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২৩, ০৮:৫২

প্রথমবারের মতো ভারতে একাধিক ভাষায় রিলিজ হতে যাচ্ছে শাকিব খান অভিনীত কোনো চলচ্চিত্র। প্যান ইন্ডিয়া ছবির নতুন ট্রেন্ডে প্রবেশ করছে বাংলাদেশ। এর আগে টলিউডের দেব ও জিতের ছবি প্যান ইন্ডিয়া অর্থাত্ সর্বভারতে মুক্তি পেয়েছে। এবারে পাবে বাংলাদেশের কোনো মুভি।

এরই ভেতরে ভারতের বেনারস এ ছবিটির অধিকাংশ শুটিং শেষ করে দেশে ফিরেছে ছবিটির টিম। নির্মাতা অনন্য মামুন বলেন,‘আমরা বাংলাদেশের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির নতুন এক পদযাত্রা শুরু করলাম। ভবিষ্যতে হয়তো এমন প্যান ইন্ডিয়া মুভি করতে অনেকেই উদ্যোগ নেবে। কিন্তু ইতিহাসের পাতায় দরদের নামটি লেখা হয়ে থাকল।’

‘দরদ’ ছবির গানের দৃশ্যে শাকিব খান ও সোনাল চৌহান।

এদিকে বিগ বাজেটের এই মুভির বাংলাদেশ অংশের শুটিং হবে ১০ ডিসেম্বর থেকে। সেখানে শুটিং করতে ভারতীয় টিমসহ ছবিটির প্রধান নায়িকা বলিউডের সোনাল চৌহানও আসবেন ঢাকায়। শাকিব খান এই প্রথম কোনো ছবিতে দুই ভাষায় শুটিং ও ডাবিং করছেন।

এছাড়া তামিল, তেলেগু ফিল্ম এরিনার অনেকেই ছবিটির সাথে সংযুক্ত। তাই ছবিটির কাজ করতে গিয়ে এরই ভেতরে দক্ষিণের একটি চলচ্চিত্রের ব্যাপারে কথা হয়েছে শাকিবের সাথে। নির্মাতা অনন্য মামুন বলেন,‘খুব শিগগিরই দক্ষিণ ভারতের সিনেমায় দেখা যাবে শাকিব খানকে।’ প্যান ইন্ডিয়া ছবি প্রসঙ্গে শাকিব খান বলেন, ‘আমার দর্শকের জন্যই সবকিছু করা। আমি আগেও বলেছি মানহীন অনেকগুলো কাজ করার চাইতে, ছবির মতো ছবি বছরে একটি দু’টি করলেই যথেষ্ট এবং সেই পরিকল্পনাতেই আমরা এগোচ্ছি।’

নির্মাতা অনন্য মামুন পরিচালিত ‘দরদ’ ছবি নিয়ে নানান ধরনের গুজব গুঞ্জন ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে। এসব প্রসঙ্গে অনন্য মামুন বলেন,‘আমাদের অফিসিয়াল পেজ বা আমরা সরাসরি কোনো স্টেটমেন্ট না দিলে কেউ কোনো গুজবকে বিশ্বাস করবেন না।’ মামুন আরও  বলেন, ‘আগে ভারতীয় ছবি ডিস্ট্রিবিউটরদের কাছে বোঝাতে হতো বাংলাদেশি ছবি কেমন, কোন মানের। এখন আমাদের একটি রেফারেন্স তৈরি হলো। এখন অনেকেই জানেন ‘দরদ’ ছবিটির কথা, যে এই ছবিতে বাংলাদেশি এক সুপারস্টার কাজ করছেন। ভারতীয় গণমাধ্যমেও শাকিব খান ও ‘দরদ’ নিয়ে বেশ চর্চা চলছে।’

শাকিব খান ও অনন্য মামুন। ছবি: সংগৃহীত

ছবিটি দুই বাংলায় তো বটেই একইসাথে গোটা ভারতের প্রায় ৫ শতাধিক সিনেমা হলে মুক্তি পাবে। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশি কোনো চলচ্চিত্র চীন ও রাশিয়ায় মুক্তি দেওয়া হবে। দুই দেশ মিলিয়ে প্রায় ১ হাজারেরও ওপরে থিয়েটারে মুক্তি দেওয়া হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৪ সালে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝিতে ‘দরদ’ ছবিটি মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

ইত্তেফাক/এএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন