বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

শ্রেণিকক্ষে মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন

ফ্রান্সে শিক্ষক হত্যা মামলায় ৬ কিশোরের বিচার শুরু

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২৩, ১৭:৪৯

প্যারিসে ২০২০ সালে স্কুলশিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি হত্যায় সংশ্লিষ্টতা থাকার অভিযোগে ছয় কিশোরের বিচার শুরু হয়েছে। ৪৭ বছর বয়সি ঐ শিক্ষককে ছুরিকাঘাত করার পর তার মস্তক বিচ্ছিন্ন করা হয়েছিল।

প্যাটির হামলাকারী ১৮ বছর বয়সি চেচেন শরণার্থী আব্দুল্লাখ আনজরভ ঘটনাস্থলে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারায়।

ইতিহাস ও ভূগোলের শিক্ষক প্যাটি শ্রেণিকক্ষে হাস্যরস বিষয়ক ম্যাগাজিন শার্লি এব্দোতে মহানবিকে নিয়ে প্রকাশিত কার্টুন দেখিয়েছেন- সামাজিক মাধ্যমে এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পর তাকে হত্যা করা হয়। ফ্রান্সে বাকস্বাধীনতা আইন নিয়ে আলোচনার সময় প্যাটি এই ম্যাগাজিন ব্যবহার করেছিলেন। ফ্রান্সে ধর্মঅবমাননা বৈধ ও ধর্মীয় ব্যক্তিত্বদের নিয়ে হাস্যরসের দীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে।

প্যাটি হত্যার কয়েক সপ্তাহ আগে শার্লি এব্দোতে ঐ কার্টুনগুলো আবার ছাপা হয়েছিল। ২০১৫ সালে কার্টুনগুলো প্রথমবার প্রকাশের পর বন্দুকধারীরা শার্লি এব্দোর কার্যালয়ে ঢুকে ১২ জনকে হত্যা করেছিল।

যে ছয় কিশোরের বিচার চলছে, তাদের মধ্যে পাঁচজনের বয়স প্যাটি হত্যাকাণ্ডের সময় ১৪ বা ১৫ ছিল। কিশোর আদালতে তাদের বিচার চলবে। তাদের বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে হত্যাকারীকে প্যাটিকে চিনিয়ে দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।     

এদিকে ষষ্ঠ কিশোর, যার বয়স হত্যাকাণ্ডের সময় ১৩ ছিল, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সে বলেছিল, প্যাটি নাকি কার্টুনগুলো দেখানোর সময় উপস্থিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে থাকা মুসলিমদের শ্রেণিকক্ষ থেকে বের হয়ে যেতে বলেছিলেন।

জিজ্ঞাসাবাদের সময় কিশোররা দাবি করেছে, তারা ভেবেছিল প্যাটিকে হয়ত সামাজিক মাধ্যমে অপদস্থ করা হতে পারে কিংবা প্রহার করা হতে পারে। এটি যে হত্যা পর্যন্ত গড়াতে পারে তা তারা কখনও ভাবেনি বলে দাবি করেছে।

অভিযুক্ত ছয়জন এখন হাইস্কুলে পড়ছে। অপরাধ প্রমাণিত হলে তাদের আড়াই বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। বিচার প্রক্রিয়া ২৭ নভেম্বর শুরু হচ্ছে, চলবে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

ইত্তেফাক/এসএটি