শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

পোস্টারে সয়লাব ঢাকা, মনোনয়ন পেলেন না মিলন

আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০২৩, ১৬:৫৯

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ২৮৯ আস‌নে মনোনীত প্রার্থী ঘোষণা ক‌রে‌ছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। পুরো রাজধানীজুড়ে যার বড় বড় পোস্টার অথচ তিনিই পেলেন না জাতীয় পার্টির মনোনয়ন। বলছি জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলনের কথা। জাতীয় পার্টির মনোনয়ন না পেয়ে তিনি নিজেও বিস্মিত।  

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ২৮৯ আস‌নে মনোনীত প্রার্থী ঘোষণা ক‌রে‌ছে জাতীয় পার্টি

রাজধানীর বিলিয়ন ডলারের প্রজেক্টে ঢাকা মহানগরী জুড়ে তৈরি হচ্ছে একের পর এক মেট্রোরেল, ফ্লাইওভার কিংবা সুরম্য অট্টালিকা। কিন্তু এসব স্থাপনা তিলোত্তমা নগরী ঢাকার সৌন্দর্য বাড়াতে পারছে না একটিমাত্র কারণে। কারণ, এসব স্থাপনায় যত্রতত্র পোস্টার, ব্যানার আর ফেস্টুন দেখা যাচ্ছে। সবচেয়ে বেশি দেখা যায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাইফুদ্দিন আলম মিলনের পোস্টার। যে কারণে ‘পোস্টার মিলন’ খেতাব পেয়েছেন তিনি। রাজধানীবাসী তাকে এ নামে ডাকেন। বিশেষ করে পুরান ঢাকায় তার পোস্টার দেখা যায় সবচেয়ে বেশি। ঢাকা-৭ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়নসহ রাজনৈতিক বহু পোস্টার সাঁটিয়েছেন তিনি।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) বিকালে দলের চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

সেখানে ঢাকা ২০টি আসনে জাপার মনোনীত প্রার্থীরা হলেন-ঢাকা-১ (দোহার ও নবাবগঞ্জ) এ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি, ঢাকা-২ (কেরানীগঞ্জ মডেল) শাকিল আহমেদ শাকিল, ঢাকা-৩ (কেরানীগঞ্জ দক্ষিণ) মো. মনির সরকার, ঢাকা-৪ সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, ঢাকা-৫ মীর আব্দুস সবুর আসুদ, ঢাকা-৬ এ্যাডভোকেট কাজী ফিরোজ রশীদ, ঢাকা-৭ তারেক এ আদেল, ঢাকা-৮ মো. জুবায়ের আলম খান রবিন, ঢাকা-৯ কাজী আবুল খায়ের, ঢাকা-১০ হাজী মো. শাহজাহান, ঢাকা-১১ মো. সিরাজ উদ্দিন আহমেদ ও শামীম আহমেদ রিজভী, ঢাকা-১২ খোরশেদ আলম খুশু, ঢাকা-১৩ শফিকুল ইসলাম সেন্টু, ঢাকা-১৪ শফিকুল ইসলাম সেন্টু ও মো. আলমাস উদ্দিন, ঢাকা-১৫ মো. শামসুল হক, ঢাকা-১৬ মো. আমানত হোসেন আমানত, ঢাকা-১৭ গোলাম মোহাম্মদ কাদের, ঢাকা-১৮ শেরীফা কাদের, ঢাকা-১৯ (সাভার-আশুলিয়া) বাহাদুর ইসলাম ইমতিয়াজ, ঢাকা-২০ (ধামরাই) খান মো. ইসরাফিল খোকন। 

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হাজি হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন না পাওয়া বিষয়ে ইত্তেফাক অনলাইনকে বলেন, ‘আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ২৮৯ আস‌নে মনোনীত প্রার্থী ঘোষণা ক‌রে‌ছে জাতীয় পার্টি কিন্তু সেখানে ঢাকা ২০টি আসনে জাপার মনোনীত প্রার্থীর তালিকায় আমার নাম নেই। আমি নিজেও বিস্মিত। আমি নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি।’

সর্বশেষ ২০২০ সালে ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী হিসেবে হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন নির্বাচন অংশগ্রহণ করেছিলেন। ঢাকা-৭ আসন হতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ পূর্বের বেশ কয়েকটি জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তবে এখন পর্যন্ত কোনো নির্বাচনে তিনি জয় লাভ করতে পারেননি।

এর আগে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী গত ২০ নভেম্বর থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে জাপা। ২৩ নভেম্বর ছিল ফরম বিক্রির শেষ দিন। পরে তা শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) বিকেল পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১৫ তারিখে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হবিবুল আউয়াল নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন ফরম দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, মনোনয়নের আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ১৮ ডিসেম্বর, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত এবং ভোটগ্রহণ ৭ জানুয়ারি।

ইত্তেফাক/এনএ