মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ডিবি হারুনের নয়, বোনের হোটেলের ভাত খেয়েছি: শামীম ওসমান

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ১৮:৩৭

এবার ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কার্যালয়ে ভাত খেলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান। ডিবির হারুনের ভাতের হোটেলে খাওয়ার বিষয়ে শামীম ওসমান বলেন, হারুন ভাইয়ের নয়, উনার স্ত্রী আমার বোন, তার হোটেলে খেয়েছি।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কার্যালয় থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

ডিবি থেকে বের হয়ে শামিম ওসমান বলেন, হারুন ভাই আমার অনেক আগের পরিচিত। এক সাথে রাজনীতি করেছি। সে কারণেই দেখা করতে আসা। পাশাপাশি নির্বাচন সামনে দেশকে নিয়ে অনেকেই ষড়যন্ত্র করার চেষ্টা করছে। এসব তথ্য তাকে দিয়েছি। এমপি হিসেবে নয় সাধারণ মানুষ হিসেবে তথ্যগুলো দিয়ে গেলাম। 

বিএনপি নির্বাচনে নেই এমন প্রশ্নে শামীম ওসমান বলেন, খেলা হবে, তবে পরিচ্ছন্ন খেলা হবে। ফাউল কম হবে। গত ২০ নভেম্বর শামীম ওসমান জানিয়েছিলেন তাকে অপরিচিত নম্বর থেকে কল করে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে।

গত ২৯ জুলাই ডিবিতে হরেকপদের খাবার দিয়ে আথিতেয়তা করা হয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে। এর পরের দিন রাতে দেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টকশোতে অংশ নিয়ে এ কে এম শামীম ওসমান বলেছিলেন, টকশোতে তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, গয়েশ্বর রায়কে কেন ডিবিপ্রধান আপ্যায়ন করলেন? এর জবাবে শামীম ওসমান বলেন, ‘গয়েশ্বর রায় একজন সিনিয়র নেতা। উনি আহত হয়েছেন। কতটুকু আহত হয়েছেন তা আমি জানি না। তবে ভিডিওতে দেখলাম, খাবারও খেলেন ভালো। সামান্য ডিবি পুলিশের ভয়ে যদি উনি (গয়েশ্বর) খেতে বাধ্য হন। তা হলে উনার রাজনীতি ছেড়ে দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য শামীম ওসমান। 

উল্লেখ্য, শামীম ওসমান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ। একজন সিনিয়র রাজনীতিবিদ হিসেবে দেশের রাজনীতির যেকোনো ইস্যুতে সোচ্চার থাকেন এই সংসদ সদস্য। এতে অনেক সময় আলোচিত-সমালোচিতও হন।

ইত্তেফাক/এনএ