রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

আগামী বিশ্বকাপেও খেলতে পারেন মেসি!

আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:৪০

গেল বছর মরুর দেশ কাতার ফুটবল বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে শোনা গিয়েছিল এই আসর শেষেই হয়তো নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ইতি টানতে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। তবে আসরের ফাইনালে ফ্রান্সকে হারিয়ে ৩৬ বছর পর আলবিসেলেস্তেরা শিরোপা জেতার পর বদলে যায় সব কিছু।

মেসিও শিরোপা জেতার পর জানান তিনি থাকছেন জাতীয় দলে। এরপরই শুরু হয় তার ভবিষ্যত্ নিয়ে আলোচনা। কিন্তু সবাই নিশ্চিত ছিল যে আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কোপা আমেরিকায় থাকছেন এলএমটেন। এবার নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে নতুন এক তথ্য জানালে মেসি নিজেই। যেখানে তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন ২০২৬ বিশ্বকাপে খেলার বিষয়েও।

সম্প্রতি মেসি ইএসপিএন/স্টার প্লাসের ডকুমেন্টারি ‘চ্যাম্পিয়নস, এ ইয়ার লেটার’-এ নিজের ভবিষ্যত নিয়ে কথা বলেন। সেখানে তিনি জানান, পরের বিশ্বকাপে তার খেলার বিষয়টি সময় বলে দেবে। বর্তমানে তিনি ফোকাস কোপা আমেরিকা নিয়ে। বলেন, ‘যতদিন আমি ফুটবল উপভোগ করব এবং মাঠে দলের হয়ে ভালো কিছু করতে পারব, ততদিন আমি আর্জেন্টিনার হয়ে খেলা চালিয়ে যাব। আমি এখন যা ভাবছি তা হলো আসন্ন কোপা আমেরিকা এবং এতে খেলতে পারা। তখন সময়ই বলে দেবে আমি আগামী বিশ্বকাপে থাকব কি না। তখন আমার বয়স ৩৯ হবে। আর ঐ বয়সে বিশ্বকাপ খেলা সহজ নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০২২ বিশ্বকাপের পর মনে হয়েছিল অবসর নিয়ে নেব। তবে সিদ্ধান্ত বদলেছি। দলের সঙ্গে আরও কিছুটা সময় কাটাতে চাই। এই সময়টা বেশি করে উপভোগ করতে চাই। ২০২৬ পর্যন্ত কী হবে তা এখন ভাবছি না। তবে অনেক কিছুই ঘটতে পারে।’

২০১৪ বিশ্বকাপ, ২০১৫ ও ২০১৬ কোপা, পরপর তিনটি বড় ফাইনালে আর্জেন্টিনা ও মেসি পরাজয়ের স্বাদ নেয়। শিরোপা জয়ের খুব কাছে থেকেও ভাগ্য তাদের পক্ষে কাজ করেনি। তবে ২০২১ সালের কোপা আমেরিকা ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের বিপক্ষে ১-০ গোলের ব্যবধানে জিতে শিরোপ জিতে মেসিরা। সেই থেকে শুরু। এরপর ২০২২ সালে ইতালিকে হারিয়ে ফিনালিসিমা এবং একই বছরের শেষ দিকে বিশ্বকাপ শিরোপা টানা সব আন্তর্জাতিক ট্রফি জিতে খড়া কাটায় আলবিসেলেস্তেরা।

এ প্রসঙ্গে মেসি বলেন, ‘এত বছর ধরে কষ্ট করার পর এখন আমরা এমন একটি বিশেষ মুহূর্ত অনুভব করছি যা আমি আগে কখনো অনুভব করিনি, আমি এটি পুরোপুরি উপভোগ করতে চাই। আমি দলের মধ্যে ভাল বোধ করছি। এই দলের সবাই খুব ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী।’

ইত্তেফাক/এএম