রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

তহুরাদের এগিয়ে থাকার পালা

বাংলাদেশ-সিঙ্গাপুর ফিফা নারী শেষ প্রীতি ম্যাচ আজ

আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১২:৫৭

সিঙ্গাপুরের নারী ফুটবল দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ ৩-০ গোলে হেরেছিল তাদের মাঠে, সেই ২০১৭ সালে। প্রায় সাত বছর লেগে গেল সেই হারের শোধ দিতে। পালটা জবাবে বাংলাদেশ ৩-০ গোলে হারিয়েছে সিঙ্গাপুরকে, শুক্রবার কমলাপুর স্টেডিয়ামে। আজ জিতলে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ। এগিয়ে যাওয়ার পালা তহুরা খাতুনদের। যিনি গত ম্যাচে জোড়া গোল করেছিলেন সিঙ্গাপুরের জালে। কমলাপুর স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-সিঙ্গাপুর নারী ফুটবলের আজ শেষ ফিফা প্রীতি ম্যাচটি কমলাপুর স্টেডিয়ামে শুরু হবে বিকাল ৩টায়। কারণ আজ খেলেই সিঙ্গাপুর নারী দল দেশে ফিরে যাবে। আজও খেলা দেখতে টিকিট লাগবে না দর্শকের জন্য। টিভির পর্দায়ও খেলা দেখা যাবে।

সিঙ্গাপুর ঢাকায় এসে প্রস্তুতি নিতে এক দিন সময় পেয়েছিল। পরদিনই ম্যাচ খেলেছিল। একটা দেশের ফুটবলাররা অন্য দেশে গেলে মানিয়ে নেওয়ার একটা ব্যাপার থাকে। সিঙ্গাপুর সেটা পায়নি। তবে বাস্তবতা হচ্ছে, এশিয়ান গেমস ফুটবলে খেলা সিঙ্গাপুরের একাধিক ফুটবলার ঢাকায় আসেনি। নতুন কিছু ফুটবলার নেওয়া হয়েছে, যার মধ্যে কয়েক জন আছেন তারা ঢাকায় এসে আন্তর্জাতিক ফুটবলে নাম লিখিয়েছেন, অভিষেক হয়েছে। বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে খেলা ফুটবলার এসেছেন সিঙ্গাপুর দলে।

একটা নতুন দল গড়ার চেষ্টা করছেন মরোক্কান কোচ করিম বেনশেরিফা। তিনি তো রাখঢাক না করে বলেই দিয়েছেন, ‘আমরা শেখার মধ্যে রয়েছি। সামনে আমাদের ফিফা উইনডোতে আরও ম্যাচ আছে। সবচেয়ে বড় কথা ওখানকার অঞ্চল ভিত্তিক কিছু খেলা রয়েছে। যেটি আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। শক্তিশালী দেশগুলো সেখানে খেলতে আসবে। আমরা সেটাকে লক্ষ্য রেখে দল গড়ছি।’ কোচ বলেছেন, ‘এখানে দেখলাম তোমাদের খেলা হলে দর্শক আসে। এটা একটা ভালো ব্যাপার। তোমাদের মাঠে খেলা হলে তোমাদের সুবিধা থাকছে।’

বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে সিঙ্গাপুর দাঁড়াতেই পারেনি। খেলাটা শুরু হওয়া থেকেই অধিনায়ক সাবিনা খাতুন, শিউলি আজিম, শামসুন নাহার, মাসুরা পারভিন, মনিকা চাকমা, সানজিদা আক্তার, মারিয়া মান্ডা, তহুরা খাতুনরা খেলাটাকে গুছিয়ে খেলেছেন। ডিফেন্স থেকে বলটাকে পায়ে পায়ে মাঝমাঠ পেরিয়ে আক্রমণে গিয়েছেন। প্রতিপক্ষ সিঙ্গাপুরের ঘরে আক্রমণ করেছেন। যেভাবে একতরফা ফুটবল খেলেছেন তাতে গোলের সংখ্যা আরও বেশি হতে পারত। সিঙ্গাপুর প্রথম ম্যাচে কিছু বুঝে উঠতে না পেরে থাকলে সেটা অন্য ব্যাপার। হয়তো খোলস থেকে বেরিয়ে আসতে পারে আজ। এমন ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। মনে আছে একবার কমলাপুরের এই মাঠেই দুই ম্যাচের খেলায় মালয়েশিয়াকে প্রথম লড়াইয়ে হারালো ৬-০ গোলে দ্বিতীয় ম্যাচেও বাংলাদেশ সেই সুযোগই পেল না। সিঙ্গাপুর তেমনটা করবে কি না, বোঝা যাবে আজকের খেলায়।  

বাংলাদেশে নারী ফুটবল দলের কোচ সাইফুল বারী টিটু সিঙ্গাপুর নিয়ে ভাবছেন, তিনি কীভাবে আজকের খেলাটায় জয় নিয়ে ফিরবেন। টিটু ধরেই নিচ্ছেন প্রথম ম্যাচে সিঙ্গাপুর যেভাবে খেলেছে আজকের ম্যাচে আরও শক্তিশালী হয়ে মাঠে নামবে।’ টিটু বললেন, ‘প্রথম  খেলায় সিঙ্গাপুর প্রেসিং ফুটবলটা খেলতে চেয়েছিল। আমাদের চাপে সেখান থেকে সরে গিয়েছিল। এবার হয়তো তারা বুঝে নিয়েছে আমাদের শক্তিটা কোথায়। আমরা প্রথম ম্যাচের মতোই আজকেও খেলার শুরুতেই আক্রমণে যাবো। গোল আদায় করার চেষ্টা করব।’ আগে যেমন বাংলাদেশের ফুটবলাররা লং বলে খেলত। এখন খেলাটাকে বিল্ডআপ করছে, টিটু খেলোয়াড়দের মধ্যে বুনন দিয়েছেন। অ্যাপটাকে ধরে রাখতে চান টিটু। আজকেও প্রথম ম্যাচের একাদশ মাঠে নামবেন টিটু।

ইত্তেফাক/জেডএইচ