বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

তেল উৎপাদন কমাতে ওপেক+ এর প্রতি পুতিন-সৌদি যুবরাজের আহ্বান

আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ২০:৫৭

বিশ্বের দুটি বৃহত্তম তেল রপ্তানিকারক সৌদি আরব ও রাশিয়া বৃহস্পতিবার ওপেক+ সদস্যদের সঙ্গে রিয়াদে বৈঠক করেছে। এসময় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বৈঠকে পুতিন ও ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বৈশ্বিক অর্থনীতির মঙ্গলের জন্য তেল উৎপাদন কমানোর চুক্তিতে যোগ দিতে সদস্য দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

পুতিনের তাৎক্ষণিকভাবে সাজানো রিয়াদ সফর ও বৈঠকের কয়েক ঘণ্টা পর রাশিয়া-সৌদির যৌথ বিবৃতিতে এ তথ্য প্রকাশ করেছে ক্রেমলিন।

পেট্রোলিয়াম রপ্তানিকারক দেশগুলোর জোট, রাশিয়া ও অন্যান্য মিত্ররা গত সপ্তাহে দৈনিক প্রায় ২ দশমিক ২ মিলিয়ন ব্যারেল তেল উৎপাদন কমাতে সম্মত হয়েছিল। নেতৃত্বে থাকা সৌদি আরব ও রাশিয়া স্বেচ্ছায় তেলের উৎপাদন দৈনিক ১ দশমিক ৩ মিলিয়ন ব্যারেল কমাতে আগ্রহ দেখিয়েছে।

ক্রেমলিনের প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘জ্বালানির ক্ষেত্রে উভয় পক্ষ তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা ও বিশ্বব্যাপী তেলের বাজারের স্থিতিশীলতা বাড়াতে ওপেক+ দেশগুলোর সফল প্রচেষ্টার প্রশংসা করেছে। উভয় পক্ষই সহযোগিতা অব্যাহত রাখার গুরুত্ব ও সকল সদস্যকে ওপেক+ চুক্তিতে যোগ দেওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছিল। চুক্তিটি উত্পাদক ও ভোক্তা, উভয় পক্ষের স্বার্থ রক্ষার পাশাপাশি বিশ্ব অর্থনীতির প্রবৃদ্ধিতেও অবদান রাখবে।’

বিবৃতিটি ছিল ছিল রুশ ভাষায়।

সৌদি রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ জানিয়েছে, ক্রাউন প্রিন্স সালমান ও পুতিন তাদের বৈঠকে ওপেক+ সদস্যদের চুক্তিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছিলেন।

বৃহস্পতিবার মস্কোতে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির সঙ্গে বৈঠক করবেন পুতিন।

পুতিনের রিয়াদ ও আবুধাবি ভ্রমণকে ঘিরে এখনও রহস্য রয়েছে। এই সফরে তাকে চারটি রুশ ফাইটার জেট নিরাপত্তা দিয়েছিল। ক্রেমলিন জানিয়েছে, পুতিন এবং ক্রাউন প্রিন্স গাজা, ইউক্রেন ও ইয়েমেনের সংঘাত, ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি এবং প্রতিরক্ষা সহযোগিতা গভীর করার বিষয়েও আলোচনা করেছেন।

ইত্তেফাক/এসএটি