সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ঢাবির মুহসীন হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত 

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২৪, ১৭:৫৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বিশ্ব ধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. মেহেদী হাসান এবং রানার্স-আপ হয়েছেন সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মো. মামুন রেজা।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সকাল ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন। প্রতিযোগিতা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

মুহসীন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. মাসুদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ঢাবি অ্যাথলেটিকস কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী, ঢাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, শারীরিক শিক্ষা কেন্দ্রের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. অসীম সরকার, কেন্দ্রের পরিচালক মো. শাহজাহান আলী, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাকসুদুর রহমান, বিভিন্ন হলের প্রাধ্যক্ষ এবং হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের আবাসিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা- কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি খেলাধুলা, বিতর্ক, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বিভিন্ন সহ-শিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীরা মুখরিত থাকবে এটাই উচ্চশিক্ষার লক্ষ্য। আর এই লক্ষ্যেই প্রতি বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতাসহ নানা ধরনের উদ্যোগ নিচ্ছে। লেখাপড়ার পাশাপাশি সহ-শিক্ষা কার্যক্রমে আরও বেশী সম্পৃক্ত হতে উপাচার্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ বলেন, হাজী মুহম্মদ মুহসীন ছিলেন একজন উদার, মানবিক ও দানশীল ব্যক্তিত্ব। এই হলের শিক্ষার্থীরা নিয়মিত শরীর চর্চা ও খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করে সুস্থ মন ও শরীর গঠন করবে এবং হাজী মুহম্মদ মুহসীনের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের উন্নয়নে যথাযথ ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় মোট ২০টি ইভেন্টে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও স্বেচ্ছাসেবকরা অংশ নেন।

ইত্তেফাক/এআই