বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

মিয়ানমারে তিন দিনে ৬২ সেনাকে হত্যার দাবি বিদ্রোহীদের

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:৩৭

বিদ্রোহীদের একের পর এক হামলায় কোণঠাসা হয়ে পড়েছে মিয়ানমারের জান্তা বাহিনী। গত তিনদিনে বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘর্ষে দেশটির সেনাবাহিনীর অন্তত ৬২ জন সদস্য নিহত হয়েছে। মিয়ানমারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইরাবতির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিপল'স ডিফেন্স ফোর্সেস (পিডিএফ) এবং এথনিক আর্মড অরগানাইজেশনস (ইএও) মিয়ানমারজুড়েই দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে হামলার পরিমাণ বাড়িয়েছে। 

সবশেষ এ সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনা সাগেইং, ম্যাগউই, মানদালা অঙ্গল এবং কাচিন ও কারেন রাজ্যে ঘটেছে। ইরাবতি বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছে বলে জানিয়েছে। তবে কিছু নিহত সেনার তথ্য নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা যায়নি বলে ইরাবতির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এদিকে মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী রাখাইন রাজ্যে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির মধ্যে সংঘর্ষের মধ্যে আজ সোমবার সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ৩৭ সদস্য। বিজিবির সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, এ নিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া বিজিপি সদস্যের সংখ্যা ৯৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

বিজিবি নাসাকা সদস্যদের নিরস্ত্র করে নিরাপদ আশ্রয়ে রাখা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। এর আগে রোববার ৫৮ জন বিজিপি সদস্য সীমান্তে আশ্রয় নেয় বলে জানান বিজিবির এই কর্মকর্তা।

ইত্তেফাক/এসআর