বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

উনি মুরুব্বি মানুষ, আবোল-তাবোল বলতেই পারেন: সালাউদ্দিন

আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:৪৩

বিপিএলে চলতি আসরের সব ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর হেড কোচের দায়িত্ব পালন করছে দেশি কোচরা। যা নানান মহলে প্রশংসিত হলেও এটা মোটেও পছন্দ হয়নি বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার এবং বর্তমান বিপিএলের টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান রকিবুল হাসানের। গেল পরশু এক সাক্ষাত্কারে দেশি কোচদের নিয়ে একটি মন্তব্য করেন তিনি।

সেখানে দেশি কোচদের নিয়ে তিনি বলেন, ‘বিপিলের দায়িত্ব পালন করার মতো যোগ্যতা দেশি কোচদের নেই।’ যদিও পরের এই তালিকায় থেকে দুই-এক জনকে বাদ দিয়েছেন তিনি। তবে এবারই প্রথম নয়, এর আগে বেশ কয়েক বার ক্রিকেটার থেকে শুরু করে কোচ এবং বিসিবির কর্মকর্তাদের নিয়ে নানান সময় আপত্তিকর মন্তব্য শোনা গিয়েছে তার কাছ থেকে।

পরে এ নিয়ে গতকাল অনুশীলন শেষে গণ্যমাধমের সঙ্গে কথা বলেন বিপিএলের সবচেয়ে সফলতম ফ্র্যাঞ্চাইজি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হেড কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। সেই সময় রবিকুল হাসানের দেশি কোচদের নিয়ে এমন মন্তব্যর বিপরীতে সালাউদ্দিন বলেন, ‘উনি মুরব্বি মানুষ, উনার বয়স হয়েছে, উনি আবোল-তাবোল বলতেই পারেন। এটা নিয়ে আমরা মনে কিছু করিনি। আমি আরো অনন্যা লোকাল কোচদের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা কেউই এই বিষয়ে তেমন একটা মনে কিছু নেইনি।’

এ সময় দেশি কোচরা কোথা থেকে শুরু করবে প্রশ্ন করে তিনি আরো বলেন, ‘একটা কোচ কি ভাবে বড় হবে আপনি আমাকে বলেন? সে অনূর্ধ্ব-১৯-এর হেড কোচও হতে পারবে না। এইচপিরও হেড কোচ হতে পাবে না, বাংলা টাইগার্সেরও হেড কোচ হতে পারবে না, ন্যাশনাল টিমেরও হেড কোচ হতে পারবে না। তাহলে আমরা কোথায় হেড কোচ হব। সারাজীবন কি আমরা সাপোর্টিং রোলেই থাকব। আমি মনে করি এটা খুব ভালো একটা সুযোগ, আমাদের ছেলেদের এগিয়ে যাওয়ার জন্য।’

সেই সঙ্গে বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে ধন্যবাদ দিয়ে সালাউদ্দিন বলেন, ‘আমি অবশ্যই ধন্যবাদ জানাই প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে। তারা দেশি কোচদের ওপর বিশ্বাস রাখছে। দায়িত্ব প্রাপ্তরা যদি এই বছর খারাপ করে তবে, সে সামনের বছর ভালো করতে পারে। কে কী বলল, তা নিয়ে মাথা না ঘামানোই ভালো। তারা নিজেদের উন্নতি করতে থাকুক। আজ বা কাল তারা ভালো অবস্থানে যাবে। দেশি কোচরা ভালো করলে আমি ব্যক্তিগত ভাবে বেশি খুশি হব।’

ইত্তেফাক/এএম