বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

দেশের সব ম্যানুয়েল ইটভাটা বন্ধ করে দেওয়া হবে: পরিবেশমন্ত্রী 

আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:২৬

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, ২০২৮ সালের মধ্যে দেশের সব ম্যানুয়েল ইটভাটা বন্ধ করে পরিবেশবান্ধব ব্লক ইটভাটায় রূপান্তর করা হবে। এর ফলে ফসলি ও কৃষি জমির মাটির ক্ষতি করতে পারবে না কেউ। 

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে ফেনী সার্কিট হাউসে গণমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের উত্তরে এ কথা জানান মন্ত্রী।  

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের ১০০ দিনের একটি কর্মসূচি আছে। এর মধ্যে আমরা প্রাথমিকভাবে ৫০০ অবৈধ ইটভাটা একেবারেই বন্ধ করে দিব। এগুলো যাতে পরে আর খুলতে না পারে সেভাবেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 

নদী দখল ও দূষণের বিষয়ে অপর এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, ‘সরকার জলাধার রক্ষায় ডিজিটাল ম্যাপিং করছে। এর মাধ্যমে আমাদের সবগুলো, নদী, জমি, খাল ও জলাধার সম্পর্কে সুনিশ্চিত হতে পারব। এরপর এর মনিটরিং ভালোভাবে করতে পারব।’  

এর আগে ফেনী সার্কিট হাউসে বন অধিদফতর ও পরিবেশ অধিদফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় পরিবেশ দূষণরোধে পৌরসভাগুলোর বর্জ্য রিসাইকেল করার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট স্থান করে দেওয়ার ঘোষণা দেন পরিবেশমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘চিকিৎসা বর্জ্য ও পৌর বর্জ্য প্রতিদিন পরিষ্কার হচ্ছে কিনা—তা তদারকি করতে হবে। তাছাড়া পরিবেশ ছাড়পত্র না নিলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ এবং ছাড়পত্র প্রদানে দীর্ঘসূত্রিতাও পরিহার করার সময় এসেছে।’ 

এসময় তিনি প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধসহ পরিবেশ দূষণ রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।
 
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন—ফেনী জেলা প্রশাসক শাহীনা আক্তার, বিআরটিএর চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীন মোহাম্মদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অভিষেক দাশ, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা রুহুল আমিন এবং ফেনী পরিবেশ অধিদফতরের উপপরিচালক শওকত আরা কলি প্রমুখ। 

ইত্তেফাক/ডিডি