সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

রয়টার্সের প্রতিবেদন

যুক্তরাষ্ট্রের রপ্তানিকৃত চালে ক্যানসারের উপাদান

আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২০:২৫

ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের দেশ হাইতির মোট আমদানি করা চালের সিংহভাগ রপ্তানি করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সম্প্রতি মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় উঠে এসেছে, এই চালে অতিরিক্ত মাত্রায় আর্সেনিক, ক্যাডমিয়ামসহ নানান ভারী ধাতু রয়েছে। আর এসব উপাদান ক্যান্সার এবং হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়াতে পারে। খবর রয়টার্সের।

ওই গবেষণায় দেখা যায়, হাইতির উৎপাদিত চালের তুলনায় আমদানি করা চালে গড় আর্সেনিক এবং ক্যাডমিয়ামের ঘনত্ব প্রায় দ্বিগুণ বেশি। কিছু আমদানি করা চালে এসব উপাদানের উপস্থিতি আন্তর্জাতিক সীমা অতিক্রম করেছে।

প্রায় সব আমদানি করা চালের এসব উপাদান শিশুদের জন্য মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) সুপারিশকৃত মাত্রাকেও ছাড়িয়ে গেছে। গবেষণায় অন্যান্য আমদানিকারক দেশে বিষাক্ত পদার্থের মাত্রা মূল্যায়ন করা হয়নি।

মেক্সিকো এবং জাপানের পাশাপাশি হাইতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চালের শীর্ষ ক্রেতাদের মধ্যে একটি। পশ্চিম গোলার্ধের সবচেয়ে দরিদ্র ক্যারিবিয়ান এই দেশটিতে চালের স্থানীয় মূল্যের চেয়ে আমদানি করা বেশি সাশ্রয়ী।

গবেষণা প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের লুইসিয়ানা, টেক্সাস এবং আরকানসাসকে শীর্ষ রপ্তানিকারক রাজ্য হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। মার্কিন চাল রপ্তানিকারকদের একটি নৈতিক তদন্ত করাসহ হাইতির কৃষি খাতকে শক্তিশালী করার ব্যবস্থা এবং দেশের খাদ্য নিরাপত্তা বিধিগুলোকে জোরদার করার আহ্বান জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে।

মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন এবং স্টেট ডিপার্টমেন্ট তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্যের অনুরোধে সাড়া দেয়নি।

ইত্তেফাক/এনএন