মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ট্রাম্পের জয়যাত্রা সত্ত্বেও টিকে রয়েছেন হ্যালি

আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:০৩

রিপাবলিকান দলের মনোনয়নের পথে একের পর এক রাজ্যে ট্রাম্পের জয় সত্ত্বেও হাল ছাড়ছেন না নিকি হ্যালি। মোটা অংকের চাঁদা পেয়ে তিনি শেষ রাতে ওস্তাদের মারের আশায় সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন।

দ্বিতীয়বার মার্কিন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পথে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জয়যাত্রা সম্পর্কে তার শিবিরে তেমন কোনো সংশয় নেই। রিপাবলিকান দলের বাকি প্রার্থীদের পেছনে ফেলে ট্রাম্প আগামী নভেম্বর মাসের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন পেয়ে যাবেন, সে বিষয়ে তারা নিশ্চিত। তবে সেই পথে এখনো বাধা সৃষ্টি করে চলেছেন ট্রাম্পের একমাত্র অবশিষ্ট প্রতিদ্বন্দ্বী নিকি হ্যালি। শনিবার নিজের রাজ্য সাউথ ক্যারোলাইনাতে ট্রাম্পের কাছে হেরে গিয়েও তিনি সংগ্রাম থেকে পিছু হটতে রাজি নন।

নিকি হ্যালির এমন নাছোড়বান্দা মনোভাব নিয়ে জল্পনাকল্পনা চলছে। ট্রাম্পের মতো ‘হেভিওয়েট’ প্রার্থীর বিরুদ্ধে টিকে থাকার পেছনে তার কোন সমীকরণ কাজ করছে, তার একাধিক মূল্যায়নের কথা শোনা যাচ্ছে। রিপাবলিকান দলের মধ্যে বিশাল সমর্থন সত্ত্বেও একাধিক মামলায় জর্জরিত ট্রাম্প শেষ পর্যন্ত আদৌ নির্বাচনে লড়ার আইনি সুযোগ পাবেন কিনা, সে বিষয়ে সংশয় কাটছে না। এমনটা ঘটলে দল বাধ্য হয়ে একমাত্র অবশিষ্ট প্রার্থী হিসেবে হেলি-কেই মনোনয়ন দিতে বাধ্য হবে বলে হ্যালির টিম আশা করছে। শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প সেই সুযোগ পেলেও ২০২৮ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেলি আবার মনোনয়নের দৌড়ে ফিরে আসতে পারেন, এমন সম্ভাবনাও রয়েছে।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রার্থী হ্যালি দুই অশীতিপর প্রার্থীর তুলনায় নিজেকে তরুণ হিসেবে তুলে ধরেও সমর্থন পাওয়ার মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন। ৮১ বছর বয়সী বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ৭৭ বছর বয়সী সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বয়সের কারণে আবার দেশের হাল ধরতে কতটা যোগ্য, ৫২ বছর বয়সী হ্যালি বার বার সেই প্রশ্ন তুলছেন।

ট্রাম্পের জয়যাত্রা সত্ত্বেও রিপাবলিকান দলের মনোনয়নের দৌড় যে এখনো পুরোপুরি শেষ হয়নি, হ্যালির প্রচার অভিযানের জন্য চাঁদার অংক তা আরও স্পষ্ট করে দিচ্ছে। প্রভাবশালী সমর্থক রোববার চাঁদা দেওয়া বন্ধ করেছে বলে মার্কিন সংবাদ মাধ্যমে দাবি করা হলেও হেলির টিম ‘তৃণমূল’ সমর্থকদের কাছ থেকে ২৪ ঘণ্টায় দশ লাখ ডলার পেয়েছে বলে জানিয়েছে। যতদিন এমন চাঁদা আসতে থাকবে, ততদিন নিকি হ্যালি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মনোনয়নের দৌড়ে টিকে থাকতে পারবেন বলে অনেক পর্যবেক্ষক মনে করছেন।

আরেকটি বিষয় হেলি ও তার সমর্থকদের আশা জিইয়ে রেখেছে। এক জনমত সমীক্ষা অনুযায়ী ট্রাম্প কোনো অপরাধের দায়ে আদালতে শাস্তি পেলে রিপাবলিকান দলের সমর্থকদের একটা উল্লেখযোগ্য অংশ তাকে আর সমর্থন করবেন না। তার বিরুদ্ধে চারটি মামলায় এমন রায়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

ট্রাম্প শেষ পর্যন্ত আইনি বাধা বা স্বাস্থ্যের কারণে মনোনয়নের দৌড় থেকে সরে যেতে বাধ্য হলে রিপাবলিকান  দলের মধ্যে অরাজকতার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। বদলি প্রার্থী হিসেবে নিকি হেলি যথেষ্ট সংখ্যক ডেলিগেটের সমর্থন না পেলে জটিলতা সৃষ্টি হবে। জুলাই মাসে রিপাবলিকান দলের সম্মেলনে ট্রাম্প শিবির নিকি হ্যালিকে যতটা সম্ভব অপদস্থ করার চেষ্টা চালাবে, এমন সংকেত এখনই পাওয়া যাচ্ছে। বিশেষ করে ‘সুপার টিউজডে’ বলে পরিচিত দিনে ট্রাম্প অন্যান্য কয়েকটি রাজ্যে জয়ের মুখ দেখলে ট্রাম্প শিবির হেলির বিরুদ্ধে আরও প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে উঠতে পারে। যদিও বর্তমানে তারা জো বাইডেনকেই প্রতিপক্ষ হিসেবে তুলে ধরে হ্যালিকে অবজ্ঞার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ইত্তেফাক/এসএটি