সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

প্রথমবারের মতো থিম পার্ক ‘ড্রাগন বল’ নির্মাণ করছে সৌদি আরব

আপডেট : ২৫ মার্চ ২০২৪, ১৬:১৯

বিখ্যাত জাপানি অ্যানিমেশন সিরিজ ড্রাগন বলের ওপর ভিত্তি করে একটি থিম পার্ক তৈরি করার ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। ঘোষণার পর দেখা গেছে মিশ্র প্রতিক্রিয়াও। খবর বিবিসি।

থিম পার্ক নির্মাণ সংশ্লিষ্ট সংস্থা জানিয়েছে, পার্কটির কেন্দ্রে একটি ৭০ মিটার (২২৯.৬ ফুট) ড্রাগন ও অন্তত ৩০টি রাইড থাকবে। জনপ্রিয় অ্যানিমেশন সিরিজের ওপর ভিত্তি করে বানানো এটিই বিশ্বের প্রথম পার্ক। তবে দেশটির মানবাধিকার লঙ্ঘনের ইতিহাস তুলে ধরে এই প্রকল্পের সমালোচনা করেছেন কেউ কেউ।

কাদিয়া ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি (কিউআইসি) অনুসারে, পাঁচ লাখ বর্গমিটার এলাকা নিয়ে বানানো হবে পার্কটি। এর সম্পূর্ণ অর্থায়ন করবে সৌদি আরব সরকার।

‘ড্রাগন বল’-এর জাপানি নির্মাতাপ্রতিষ্ঠান টোয়েই অ্যানিমেশন ও কিউআইসির মধ্যে দীর্ঘমেয়াদি কৌশলগত অংশীদারির অংশ হিসেবে থিম পার্কটি নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়েছে।

ড্রাগন বলের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুসারে, পার্কের ড্রাগনের ভেতরে একটি রোলার কোস্টারও থাকবে।

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের কাছে নির্মাণাধীন অন্যতম বড় বিনোদন ও পর্যটন প্রকল্প হলো ‘কাদিয়া’। তেলনির্ভরতা থেকে অর্থনীতিকে বের করে এনে তা বহুমুখী করার সৌদি পরিকল্পনারই একটি অংশ এ প্রকল্প।

তবে ড্রাগন বল সিরিজের ভক্তরা থিম পার্কের পরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছে। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে প্রকল্পটি নিয়ে সমালোচনাও করেছেন।

ড্রাগন বলের স্রষ্টা আকিরা তোরিয়ামার মৃত্যুর কয়েক সপ্তাহ পরেই থিম পার্ক নির্মাণের ঘোষণা দিলো সৌদি আরব।

ড্রাগন বল ওয়েবসাইটের বিবৃতি অনুসারে, তোরিয়ামা ১ মার্চ, ৬৮ বছর বয়সে মারা যান। শুধু তার পরিবার ও খুব অল্প কয়েকজন বন্ধু তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নিয়েছিলেন।

ড্রাগন বল কমিক সিরিজটি ১৯৮৪ সালে আত্মপ্রকাশ করে। কমিকের গল্পটি সন গোকু নামের একটি ছেলেকে ঘিরে যে কিনা সুপার পাওয়ারের অধিকারী হওয়ার জন্য যাদুকরী ড্রাগন বল সংগ্রহের চেষ্টা করে। এটি সর্বকালের সবচেয়ে প্রভাবশালী ও সর্বাধিক বিক্রিত জাপানি কমিকগুলোর মধ্যে একটি।

 

ইত্তেফাক/এসএটি