সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

হাবিপ্রবিতে র‌্যাগিংয়ের নামে জুনিয়রকে সিগারেটের ছ্যাঁকা, ২ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

আপডেট : ২৭ মার্চ ২০২৪, ১৯:৩৭

র‍্যাগিংয়ে জড়িত থাকার দায়ে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ২ শিক্ষার্থীকে এক সেমিস্টার করে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একইসঙ্গে তাদেরকে আজীবন হল থেকে বহিষ্কারসহ আরও ৬ ছাত্রকে সতর্ক করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বহিষ্কৃতরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কিটেকচার ২২ ব্যাচের শিক্ষার্থী তানবির রুবাইয়েত ফারাবী ও একই ব্যাচের দিগন্ত সাহা। এর আগেও ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন এবং প্রক্টর অফিস ফারাবী ও দিগন্তকে র‍্যাগিং থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্কও করেছিল।

জানা যায়, গত ১১ ফেব্রুয়ারি ভোরবেলা আর্কিটেকচার বিভাগের ২৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বটগাছের নিচে ডাকে একই বিভাগের ২২ ব্যাচের অভিযুক্ত শিক্ষার্থীরা। তারা কথোপকথনের একপর্যায়ে নবীন শিক্ষার্থীকে চড়থাপ্পর মারে এবং হাতে সিগারেটের আগুন দিয়ে ছ্যাঁকা দেয়। এরপর তাদের মেসে নিয়ে গিয়েও র‍্যাগ দেয়। পরে নবীন শিক্ষার্থীদের অভিযোগ আমলে নিয়ে তদন্ত করে এর সত্যতা পায় র‍্যাগিং প্রতিরোধ কমিটি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মামুনুর রশীদ বলেন, র‍্যাগিং কোনো অবস্থাতেই কাম্য নয়। র‍্যাগিংয়ের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কঠোর অবস্থানে রয়েছে। শিক্ষার্থীদের র‍্যাগিং থেকে দূরে থাকতে আহবান জানাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড. মাহবুব হোসেন বলেন, ছাত্রদের শাস্তি প্রদান ও বহিষ্কার আমাদের জন্য দুঃখজনক একটি বিষয়। শিক্ষার্থীদের আমরা বারবার সতর্ক করে যাচ্ছি র‍্যাগিং থেকে দূরে থাকার জন্য। আমাদের তারপরেও ব্যবস্থা নিতে হচ্ছে। আমরা অভিভাবকদের আশ্বস্ত করতে চাই হাবিপ্রবিতে কোনো অবস্থাতেই র‍্যাগিংয়ের ঘটনাকে সমর্থন করা হবে না। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এই ব্যাপারে শূন্য সহিষ্ণু নীতিতে রয়েছে।

ইত্তেফাক/এবি