বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

‘ভারতীয় পণ্য আওয়ামী লীগকে বর্জনেই জাতির মুক্তি মিলবে’

আপডেট : ২৯ মার্চ ২০২৪, ১৭:২৮

ভারতের সবচেয়ে বড় পণ্য হলো আওয়ামী লীগ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, আজ ভারতের সবচেয়ে বড় পণ্য হলো আওয়ামী লীগ, শেখ হাসিনা। এটা বর্জন করলেই শেষ। অন্য পণ্য বর্জন করার প্রয়োজন হয় না আমাদের। বর্জন করার তো করছেই, এখন এটাকে তাড়ানো যায় কিনা। তাহলেই তো শেষ। 

শুক্রবার (২৯ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ জিয়াউর রহমানের ভূমিকা ও আজকের বাংলাদেশ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

শুধু ভারতীয় পণ্য বর্জনই নয়, জনগণকে ভারতে না যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আপনারা অনেকে জানেন না, যারা ভারতে যান চিকিৎসার জন্য, ভ্রমণের জন্য, তারা হয়ত জানতে পারেন। প্রতিদিন গড়ে ১০ হাজার ভিসার আবেদন জমা পড়ে। ৮০০ টাকা করে হলে ৮০ কোটি টাকা, মাসে ২ হাজার ২৪০ কোটি টাকা, বছরে তাহলে বোঝেন কত কোটি টাকা ওরা পাচ্ছে।

তিনি বলেন, ভিসা মানে কি? একজন মানুষ যখন বর্ডার ক্রস করবে, পার ডে পাঁচ হাজার টাকা খরচ, চিকিৎসার খরচ আছে, ওষুধের খরচ আছে, আওনের সময়ে মার্কেটিং আছে… নাকি? ওষুধ না কিনা আমাগো তো অভ্যাস খারাপ জিনিস কিনমু…।

সম্প্রতি আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ভারত পাশে থাকায় জাতীয় নির্বাচনে অন্য কোনো দেশ অশুভ খেলার সাহস করেনি। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব প্রতিদিন নাটক করবেন, নানা ধরনের উচ্চ-বাচ্য করবেন। ভারত নিয়ে আপনিই তো ভেজালটা লাগাইলেন।

সারা বিশ্বের গণতান্ত্রিক দেশের লোক আমাদের বিরুদ্ধে যে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছিল, ভারত যদি পাশে না থাকত, আমরা এই নির্বাচন … ৭ তারিখে ডামি, স্বামী, সমকালীন নির্বাচন সম্পন্ন হইতে পারত না। এটা কি আমাদের দল থেকে কেউ বলছে না আপনি বলছেন, বলেন গয়েশ্বর।

জাতিকে রাহুগ্রাসের কবল থেকে মুক্ত করতে হবে। কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা এখনও পাওয়া যায়নি, এজন্য যুদ্ধ চলমান রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ইত্তেফাক/এবি