বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

যুদ্ধ-পূর্ব অবস্থায় ইউরোপ: পোলিশ প্রধানমন্ত্রী

আপডেট : ৩০ মার্চ ২০২৪, ১৯:২৩

ইউক্রেন-রশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে বিধ্বস্ত পরিস্থিতি চলছে ইউরোপে। পরিস্থিতিতে ইউরোপের যুদ্ধ-পূর্ব অবস্থা বলে মন্তব্য করেছেন পোল্যান্ডের  প্রধানমন্ত্রী ডোনাল্ড টাস্ক। তিনি বলেন, ‘ইউরোপে কেউই নিরাপদ বোধ করবে না যদি কিয়েভ যুদ্ধে হেরে যায়।’

শুক্রবার ইউরোপীয় মিডিয়া গ্রুপ লেনাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই রাজনীতিবিদ ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার দুই বছর পর ইউরোপের পরিস্থিত নিয়ে নিজের মতামত ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, ‘যেকোনো কিছুই ঘটতে পারে। রাশিয়া যখন ইউক্রেনে হামলা চালিয়েছে তখন ইউরোপ যুদ্ধ পূর্ববর্তী অবস্থায় প্রবেশ করেছে।’

পোলিশ এই রাজনীতিবিদ আরো বলেন, ‘ইউরোপে সংঘাতের একটি সত্যিকারের হুমকি রয়েছে। এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই মহাদেশ প্রথমবারের মতো যুদ্ধ পূর্ববর্তী অবস্থায় প্রবেশ করেছে। যুদ্ধ অতীতের কোনো বিষয় নয়। এটি এখন বাস্তব, দুই বছর আগেই তা শুরু হয়েছে। এই মুহূর্তে সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হলো, যেকোনো কিছুই ঘটতে পারে। ১৯৪৫ সালের পর থেকে আমরা এ ধরনের পরিস্থিত দেখিনি।’

তিনি বলেন, ‘আমি জানি যে এটি খুব ভয়ানক শোনাচ্ছে, বিশেষ করে তরুণদের কাছে। কিন্তু আমাদের এই বাস্তবতার সঙ্গে অভ্যস্ত হতে হবে যে একটি নতুন যুগ শুরু হয়েছে- যুদ্ধ পূর্ববর্তী যুগ। আমি বাড়িয়ে বলছি না, প্রতিদিন বিষয়টি পরিষ্কার হচ্ছে।’

ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের সাবেক এই প্রেসিডেন্ট এমন সময়ে তার আশঙ্কার কথা জানালেন যখন ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার দুই বছর সময় অতিবাহিত হলো। রাশিয়া হামলা শুরুর পর ইউরোপের অনেক দেশই নিজদের অস্ত্র উৎপাদন বাড়াতে শুরু করেছে। 

ইউরোপিয়ানদের মানসিকতার বিষয়টি উল্লেখ করে পোলিশ এই রাজনীতিবিদ বলেন, ‘ইউরোপে কেউ একটি সাধারণ প্রতিরক্ষাব্যবস্থার বিষয়ে প্রশ্ন তোলে না। একটি শক্তিশালী জোট হিসেবে ইইউকে মানসিকভাবে নিজেদের সীমান্ত ও নিরাপত্তার জন্য যুদ্ধ করতে প্রস্তুত থাকতে হবে।’

অবশ্য একটি শক্তিশালী ইউরোপের বিষয়ে আলোচনা ন্যাটো নিয়ে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাম্প্রতিক মন্তব্যের পর আবারো সামনে এসেছে।

পোলিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের কাজ হলো আন্তঃআটলান্টিক সম্পর্ক বজায় রাখা। এক্ষেত্রে কে হলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট সেটি বিবেচ্য বিষয় নয়।’

ইত্তেফাক/এসএটি