মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

এক থা টাইগারেই ভেঙেছিল প্রেমের সম্পর্ক!

আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৩০

সালমান ও ক্যাটরিনা কাইফের প্রেমের গল্প কারোরই অজানা নয়। তাদের পারস্পরিক ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা কখনোই নিজের মুখে বলেননি। তবে ক্যাটরিনার ক্যারিয়ারের পিছনে সালমানের অবদানের কথা ইন্ডাস্ট্রির ‘খোলা খাতা’র মতো। একটা সময় সম্পর্কে থাকলেও বেশিদিন দীর্ঘায়িত হয়নি তা। সালমানের সঙ্গে ক্যাটরিনার বিচ্ছেদ হয় ২০১২ সালে। সম্পর্ক ভাঙার পরই ‘এক থা টাইগার’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেন তারা। 

কিন্তু পরিস্থিতি কেমন ছিল দুজনের? এতদিনে তা জানালেন পরিচালক কবীর খান। টাইগার সিরিজের তিনটি ছবি এখন পর্যন্ত তৈরি হয়েছে। ২০১২ সালে মুক্তি পায় সিরিজের প্রথম ছবি ‘এক থা টাইগার’। পাঁচ বছর পর মুক্তি পায় ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। গত বছর ১২ নভেম্বর মুক্তি পায় সিরিজের শেষতম ছবি ‘টাইগার ৩’। ‘টাইগার’ ফ্র্যাঞ্চাইজের প্রথম ছবি ছিল ‘এক থা টাইগার’। এই ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন সালমান-ক্যাটরিনা। টাইগার জুটিকে পছন্দ করেছিলেন দর্শক। কিন্তু পর্দার রসায়নের নেপথ্যে শুটিংয়ের সময়ে দুজনের মধ্যে ছিল একরাশ অস্বস্তি ও টানাপোড়েন। 

কারণ ছবির শুটিং শুরুর আগেই ভেঙে যায় সম্পর্ক। এ বিষয়টিই সম্প্রতি এক ইন্টারভিউতে প্রকাশ্যে এনেছেন ছবির পরিচালক কবীর। সম্প্রতি এক সাক্ষাতকারে এই ছবির অভিনেতা নির্বাচন প্রসঙ্গে কবীর বলেছেন, ‘ওদের বিচ্ছেদের বিষয়টা আমরা সেটেই টের পাই। দুজনের কেউই একই ফ্রেমে স্বচ্ছন্দ ছিল না। তাতে আমাদের খানিকটা মন খারাপ হয়। পরে অবশ্য তারা পেশাদার অভিনেতার মতোই কাজটা চালিয়ে যান। তবে সেদিনই বুঝেছি যে সালমান-ক্যাটরিনার সম্পর্ক আর জোড়া লাগার নয়। সত্যিই সেদিন খুব কষ্ট লেগেছিল আমাদের। কিন্তু ব্যক্তিস্বার্থ বা ছবির স্বার্থে আমরা কেউই বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলিনি।’

ইত্তেফাক/এমএএম