শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

সরিষাবাড়িতে স্কুলছাত্র উজ্জল হত্যা: প্রধান আসামি পরাণ গ্রেপ্তার

আপডেট : ০৪ এপ্রিল ২০২৪, ২১:২৩

জামালপুরের সরিষাবাড়িতে স্কুলছাত্র উজ্জল হত্যার প্রধান আসামি পরাণকে গ্রেপ্তার করেছে সরিষাবাড়ি থানা পুলিশ। এ পর্যন্ত ইজাহারভুক্ত  ৪ জন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হলেন পরাণ, সাঈদ, সাদ্দাম ও রুবেল। 

জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সোর্সের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই সিব্বির আহাম্মেদের নেতৃর্ত্বে একদল পুলিশ ফোর্স সিরাজগঞ্জ জেলার কাজীপুর উপজেলার  রঘুনাথপুর গ্রামের আসামির এক আত্মীয় বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পরাণকে গ্রেপ্তার করে সরিষাবাড়ি থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ কথা জানান জামালপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহরাব হোসেন। 

উল্লেখ্য, ৮ম শ্রেণির ছাত্র উজ্জল গত ২৭ মার্চ বুধবার সন্ধ্যায় তার বন্ধুর সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর রাতে আর বাড়িতে ফিরে আসেনি। পরে উজ্জ্বলের বাবা ও আত্মীয়-স্বজনেরা অনেক খোঁজাখুঁজির পর ছেলেকে না পেয়ে ঐ রাতেই বাবা উষর আলী বাদী হয়ে সরিষাবাড়ি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। ঘটনার ৪ দিন পর ৩১ মার্চ রোববার সন্ধ্যায় নিহত উজ্জলের পাশের রাশেদ মিয়ার বাড়ির টয়লেটের ট্যাংকি হতে উজ্জলের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে সরিষাবাড়ি থানা পুলিশ। এ সময় সন্দেহজনকভাবে কিশোর গ্যাংয়ের অনলাইনে জুয়াড়ু সাঈদ ও সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ১ এপ্রিল বাবা উষর আলী কিশোর গ্যাংয়ের প্রধান পরাণকে ১ নম্বর আসামি করে ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে। এ ছাড়াও আরও ৭ থেকে ৮ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের জবানবন্দি মোতাবেক গত বুধবার রুবেল নামে আরেক আসামিকে গ্রেপ্তার পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে এসআই সিব্বির আহাম্মেদের নের্তৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি পরাণকে গ্রেপ্তার করে। জানা যায়, মাত্র ১৫০০ টাকার জন্য উজ্জ্বলকে হত্যা করা হয় বলে প্রধান আসামি পরাণ পুলিশকে জানায়। 

ইত্তেফাক/পিও