সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মাদারীপুরে বর্ণিল আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসবে চিফ হুইপ

আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:৫৯

নববর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠানে মাদারীপুরের শিবচরে বানর নাচ, সাপ খেলাসহ নানা রকমের মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। গ্রামীণ মেলায় মাটির তৈরি খেলনা, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীসহ বিভিন্ন সামগ্রী কিনতে মেলায় আগতদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী স্বপরিবারে গ্রামীণ মেলায় উপস্থিত হয়ে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

জানা যায়, বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। বর্ষবরণে এদিন শিবচরে দিনব্যাপী বিভিন্ন আয়োজন ছিল। সকালে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। বিকালে চৌধুরী ফিরোজা বেগম শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে শিল্পকলা একাডেমি ও মুক্তমঞ্চ প্রাঙ্গনে বসে গ্রামীণ মেলা। মেলায় মাটির তৈরি খেলনা, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী, বিভিন্ন রকমের পিঠা, মিষ্টিসহ বিভিন্ন সামগ্রীর পসরা সাজিয়ে বসেন দোকানিরা। মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় বাঙালির ঐতিহ্য বানর নাচ, সাপ খেলা, পুতুল নাচসহ মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। শত শত মানুষ উপভোগ করেন অনুষ্ঠান। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী স্বপরিবারে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। এ সময় মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুনির চৌধুরী, শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ মোল্লা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন, পৌর মেয়র আওলাদ হোসেন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিমসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। অপরদিকে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে মাদারীপুরে বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ উদযাপন করা হয়েছে। 

রোববার (১৪ এপ্রিল) ভোরে আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে শহরের লেকেরপাড়ের স্বাধীনতা অঙ্গনে গানের সুরে সুরে নতুন বছরকে স্বাগত জানায় শিল্পীরা। এ সময় জেলার বিভিন্ন শিল্পীরা কবিতা আবৃত্তিও করেন। পরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের বাসভবনের সামনে থেকে একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শহরের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে স্বাধীনতা অঙ্গনের সামনে গিয়ে শেষ। পরে আবারও অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। বৈশাখের প্রথম দিনে জেলা শিল্পকলা একাডেমি, উদীচী, শিশু একাডেমি, উদ্ভাস আবৃত্তি সংগঠনসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের অংশগ্রহণে চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এ ছাড়া লেকেরপাড়ের বটতলায় আয়োজন করা হয়েছে ৩ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা। মেলায় দেখা মিলছে নিত্য প্রয়োজনীয় জিসিনপত্রসহ পছন্দের সবকিছু।

মাদারীপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির নাট্য প্রশিক্ষক আজম কামাল বলেন, প্রতিবছর এইদিনে জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা শোভাযাত্রায় অংশ নেয়। এটি আমাদের ঐতিহ্যের পাশাপাশি পুরনো গ্লানি ভুলে নতুন বছরে নতুনত্ব নিয়ে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ এই প্রত্যাশা।

মাদারীপুর জেলা উদীচীর সভাপতি ডা. রেজাউল আমিন খোকন বলেন, দেশ থেকে সকল অন্যায়, অবিচার, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস দূর হবে, সেই প্রত্যাশাই নতুন বছরে।

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মারুফুর রশিদ খান জানান, বাঙালির ঐহিত্য পহেলা বৈশাখ। তাই শহরের লেকেরপাড়ে তিন দিনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। যাতে দর্শনার্থীরা ঘুরতে এসে বিনোদন নিতে পারেন।

মঙ্গল শোভাযাত্রায় মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মারুফুর রশিদ খান, পুলিশ সুপার মো. মাসুদ আলম, সিভিল সার্জন ডা. মুনীর আহম্মেদ খান, সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, জনপ্রতিধিনিধি, বীর মুক্তিযোদ্ধা, শিল্পকলা একাডেমি, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রী, মাদারীপুর পৌরসভা এবং সাধারণ জনগণ অংশগ্রহণ করে।

ইত্তেফাক/পিও