শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

স্বাস্থ্যখাতে নতুন অশনি সংকেত অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫২

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন বলেছেন, মানুষ থেকে শুরু করে গ্রামে-গঞ্জে পশুপাখির মধ্যেও অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স (অকার্যকরিতা) বিস্তার লাভ করেছে। স্বাস্থ্যখাতের এ হুমকি মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারি সব খাতকে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাজধানীর মহাখালীতে ব্র্যাক সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। এতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগ এবং ব্র্যাকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ব্র্যাকের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ব্রেস্ট ক্যানসার বা স্তন ক্যানসার, জরায়ুমুখ ক্যানসার ও হাইপারটেনশনের মতো বিষয়গুলোতে আরও বেশি সচেতনতা দরকার। ব্রেস্ট ক্যানসারের রোগী যখন চিকিৎসকের কাছে আসেন, তখন বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আর বিশেষ কিছু করার থাকে না। অথচ প্রাথমিক পর্যায়ে রোগ নির্ণয় হলে তা অনেকাংশেই নিরাময়যোগ্য। একইভাবে গ্রামাঞ্চলে অনেক ঠোঁটকাটা, তালুকাটা রোগী ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়। তারা সঠিক চিকিৎসা পায় না।

তিনি বলেন, দেশে স্বাস্থ্যখাতে অনেক ভালো কাজ হচ্ছে, কিন্তু এসব ক্ষেত্রে অনেক সময় সমন্বয়ের অভাব দেখা যায়। সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলো সমন্বিতভাবে কাজ করলে মানুষ উপকৃত হবে।এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট এবং ব্র্যাক লিম্ব অ্যান্ড ব্রেস্ট সেন্টার (বিএলবিসি) পরিকল্পিত ও পরিচালিত কৃত্রিম অঙ্গ সংস্থাপন চিকিৎসাকেন্দ্রের কথা উল্লেখ করেন মন্ত্রী। 

তিনি আরও বলেন, এর মাধ্যমে অনেক মানুষ কৃত্রিম অঙ্গ প্রতিস্থাপনের সুবিধা পাচ্ছেন। মানুষের কল্যাণে বেসরকারি খাতের সহযোগিতায় এমন আরও অনেক উদ্যোগ নেওয়া যেতে পারে।

সাংবাদিকদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে চিকিৎসারত সাবেক সিভিল সার্জন ডা. দীন মোহাম্মদসহ প্রতিষ্ঠানটিতে চিকিৎসা নিতে আসা বিভিন্ন রোগীদের চিকিৎসা সেবা পরিদর্শন করেন। 

ইত্তেফাক/কেকে