বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

জিমিকে খেলতে দেওয়া হচ্ছে না

আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১৬:৪৩

আগামীকাল প্রিমিয়ার হকি লিগের শেষ খেলায় আবাহনীর বিপক্ষে জিতলে মোহামেডান চ্যাম্পিয়ন। ড্র হলে মোহামেডান রানার্স আপ। আবাহনী জিতলে মেরিনারের সঙ্গে পয়েন্ট সমান হবে। এই অবস্থায় আগামীকাল আবাহনীর বিপক্ষে মোহামেডানের অধিনায়ক রাসেল মাহমুদ জিমিকে খেলতে দেওয়া হচ্ছে না। হকি ফেডারেশনের লিগ কমিটি থেকে মোহামেডানকে চিঠি পাঠিয়ে বলা হয়েছে, জিমির নামে ৩টি হলুদ কার্ড হয়েছে। তিনি পরবর্তী ম্যাচ খেলতে পারবেন না। পরবর্তী ম্যাচ আবাহনীর বিপক্ষে। 

মোহামেডানের কথা হচ্ছে, বাইলজে উল্লেখ রয়েছে—২ হলুদ কার্ড হলে লিগ কমিটি হতে একটি চিঠি পাঠিয়ে জানিয়ে দেওয়ায় হয়, সাবধান করা হয়। কিন্তু মোহামেডান এমন কোনো চিঠি পায়নি। লিগ কমিটি থেকে কোনো চিঠি না দিয়ে ৩ হলুদ কার্ড হয়েছে উল্লেখ করে চিঠি দেওয়া হয়েছে। গতকাল মোহামেডান জানিয়েছে, ৩ হলুদ কার্ড হওয়ার দেড় ঘণ্টার মধ্যে হকি ফেডারেশন চিঠি দিয়েছে। তাহলে ২ হলুদ কার্ড হওয়ার পর কেন চিঠি দেওয়া হলো না? জিমির দাবি, তার নামে ৩ হলুদ কার্ড হয়নি। এখন নাকি বলা হচ্ছে, পুলিশের বিপক্ষে ম্যাচে একটি হলুদ কার্ড হয়েছিল।’

বিদেশি আম্পায়ার খেলা চালাচ্ছেন, এক জনের নামে সবুজ কার্ড দেখিয়ে পরে সেটি প্রত্যাহারও করেছেন। ভুলভ্রান্তি থাকছেই। বিদেশি আম্পায়াররা কারো দ্বারা প্রভাবিত হচ্ছেন। খেলার বাইরে আম্পায়ারদের সঙ্গে কোনো কোনো ক্লাব কর্মকর্তারও দেখা-সাক্ষাৎ হচ্ছে—এসব গুঞ্জন চলছেই হকিতে। আর পরদিনই সেই সব প্রভাব পড়ছে খেলার মাঠে। নানা বিতর্ক হচ্ছে। সিদ্ধান্ত দিতে পারছেন না আম্পায়াররা। ৬০ মিনিটের খেলা শেষ হয় আড়াই ঘণ্টায়। বিদেশি আম্পায়ারদের দুর্বলতার শিকার হচ্ছেন ভালো খেলোয়াড়েরা।

হকি ফেডারেশনের যুগ্ম-সম্পাদক মাহবুবুল এহসান রানা জানিয়েছেন, জিমি ভালো খেলোয়াড়, তারও উচিত ছিল কয়টি কার্ড হয়েছে সেটি মনে রাখা।’ আর জিমি বলেছেন, ‘আমি তো জানি আমার ২টি হলুদ কার্ড হয়েছে। ২ কার্ড হওয়ার পরই চিঠি দিয়ে সাবধান করা হয়। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেও ফেডারেশন চিঠি দিতে পারল না। আর ৩ কার্ড হয়েছে—এটা বলেই দেড় ঘণ্টার মধ্যে চিঠি তৈরি হয়ে গেল, কীভাবে?’

চিঠি দেয় লিগ কমিটি। লিগ কমিটির সম্পাদক খাজা তাহের লতিফ মুন্নার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

মোহামেডানের আক্রমণের প্রধান অস্ত্রই হচ্ছেন অধিনায়ক রাসেল মাহমুদ জিমি। তাকে থামিয়ে দেওয়ার এটি নতুন কৌশল মনে করছেন মোহামেডানের ক্লাব কর্তারা। জিমিকে ঠেকানোর শেষ কৌশল ৩ হলুদ কার্ড। যেহেতু বাইলজের নিয়ম প্রয়োগ হয়নি, তাই জিমিকে পরবর্তী ম্যাচে খেলার অনুমতি চেয়েছে মোহামেডান।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন