সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

জাবিতে ‘শিক্ষার্থী কল্যাণ ফি’ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১৭:২০

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ভর্তি ফি থেকে ‘শিক্ষার্থী কল্যাণ ফি’ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

রোববার (২১ এপ্রিল) দুপুর ২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার সংলগ্ন সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় শিক্ষার্থী কল্যাণ ফি বাতিল না করলে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার হুশিয়ারি দেন শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী জাহিদুল ইসলাম ইমন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে অধিকাংশ মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের। শিক্ষার্থী কল্যাণ ফি’র নামে ধার্যকৃত ছয় হাজার টাকা তাদের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়াবে। প্রশাসনের এমন অবিবেচক সিদ্ধান্ত মোটেও শিক্ষাবান্ধব নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিগত বছরগুলোতে উন্নয়ন ফি বা কল্যাণ ফি ছাড়া ঠিকই তো বিশ্ববিদ্যালয় চলেছে এখন হঠাৎ কেনো নতুন করে এই ফি চালু করতে হলো? ভর্তি পরীক্ষা হতে উপার্জনকৃত অর্থ থেকে যেখানে বিভাগগুলোর উন্নয়নের জন্য বরাদ্দ দেওয়া সম্ভব সেখানে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ওপর এই অর্থের বোঝা চাপিয়ে দেওয়া অন্যায়।’

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী আরিফ সোহেল বলেন, ‘পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য হচ্ছে দেশের মেধাবী ও স্বল্প আয়ের শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার সুযোগ প্রদান। তবে শিক্ষার্থী কল্যাণ ফি’র নামে ভর্তিচ্ছুদের থেকে অতিরিক্ত ছয় হাজার টাকা আদায় করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্যকে অর্থহীন করে তুলেছে প্রশাসন। যদি বিভাগ উন্নয়নসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে অর্থের প্রয়োজন হয়, সেক্ষেত্রে চলমান উইকেন্ড কোর্সগুলো থেকে প্রাপ্ত অর্থ ব্যয় করা যেতে পারে এবং তাও যথেষ্ট না হলে বিশ্ববিদ্যালয় ইউজিসি গ্রান্ট বা সরকারী সহায়তার দ্বারস্থ হতে পারে। কিন্তু কোনোক্রমেই এই অর্থনৈতিক দায় শিক্ষার্থীদের ওপরে চাপানো যাবে না।’

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী আহসান লাবিবের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থী সোহাগী সামিয়া প্রমুখ।

ইত্তেফাক/এআই