মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

চৌগাছায় ধর্ষণের শিকার ১১ বছরের শিশু, অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৫:৫৭

যশোরের চৌগাছায় ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত রবিউল ইসলামকে (৪৪) আটক করে পুলিশ। সোমবার (২২ এপ্রিল) রাতে উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়নের স্বর্পরাজপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত রবিউল উপজেলার পাতিবিলা ইউনিয়নের বড় নিয়ামতপুর গ্রামের মৃত শাহাদৎ হোসেন মণ্ডলের ছেলে ও পেশায় ভ্যানচালক।

জানা যায়, মেয়েটি অভিযুক্ত রবিউল ইসলামের পাশাপাশি ঘরে বসবাস করতো। সোমবার রাতে রবিউল ইসলামের স্ত্রী ও মেয়েটি রবিউল ইসলামের ঘরের বারান্দায় শুয়ে ঘুমাচ্ছিল। অভিযুক্ত রবিউল ইসলাম একই ঘরের ভেতরে শোয়া ছিল। স্ত্রী ঘুমিয়ে পড়লে রবিউল ইসলাম শিশুটিকে মোবাইলের নাম্বার বের করার কথা বলে ঘরের ভেতরে ডেকে নেয়। এ সময় শিশুটির মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এতে শিশুটি রক্তক্ষরণ হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে শিশুটি নিজেদের ঘরে গিয়ে তার মাকে জাপটে ধরে কান্নাকাটি করে। ঘটনা জানার পর মেয়েটির বাবা-মায়ের সঙ্গে রবিউল ইসলামের ধস্তাধস্তি হয়। তাদের চিৎকারে অন্য বাসিন্দারা ছুটে আসেন। পরে তারা রবিউল ইসলামকে আটকে রেখে ৯৯৯ কল দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্তকে আটক করে। এবং শিশুটিকে উদ্ধার করেন চৌগাছা সরকারি মডেল হাসপাতালে নেয়।

চৌগাছা সরকারি মডেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. খন্দকার জুলকার ইসলাম বলেন, শিশুটিকে পাশবিক নির্যাতন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের ওসিসিতে রেফার্ড করা হয়েছে। আর অভিযুক্তকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পরে পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে গেছে।

মামলার বাদী শিশুটির বাবা বলেন, আমি এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার চাই। তার সর্বোচ্চ শাস্তি চাই। 

চৌগাছা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিশুটির পিতা বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলা করেছেন। আসামি রবিউলকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/পিও