বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বিয়ে-বিচ্ছেদ নিয়ে শিমুল

বিয়ে করতে চাইনি, করলাম; ডিভোর্স চাইনি, হয়ে গেল

আপডেট : ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৭

একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা ও মডেল মনির খান শিমুল। অসংখ্য টেলিফিল্ম, নাটক ও সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। ব্যক্তিজীবনে অভিনেত্রী নাদিয়া আহমেদের সঙ্গে ভালোবেসে ঘর বেঁধেছিলেন এই অভিনেতা। তবে দীর্ঘস্থায়ী হয়নি তাদের সেই সংসার। পাঁচ বছরের মধ্যেই সংসার জীবনের ইতি টানেন নাদিয়া-শিমুল।

পরবর্তীতে অভিনেতা নাঈম আহমেদকে বিয়ে করে পুনোরায় ঘর বাঁধেন নাদিয়া। বর্তমানে বেশ সুখেই আছেন তারা। নাদিয়া নতুন নীড়ের খোঁজ পেলেও শিমুল এখনও একাই রয়ে গেছেন। আগের মতো অভিনয়েও খুব একটা দেখা যায় না তাকে। এবার বিয়ে এবং বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুলেছেন শিমুল।

সম্প্রতি দেশের এক গণমাধ্যমে ব্যক্তিগত জীবন, বিয়ে-বিচ্ছেদ, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাসহ নানান বিষয় নিয়ে কথা বলেন এই অভিনেতা।

এ সময় বিয়ে করছেন কবে? এমন প্রশ্নের জবাবে শিমুল বলেন, কখনোই বিয়ে করতে চাইনি। তবে সময়ের প্রয়োজনে বিয়ে করলাম। ভাবলাম জীবনটা সাজাবো। কেউ তো ডিভোর্স চায় না। কিন্তু ডিভোর্স হয়ে গেল। বিয়ে যখন করব না বলেছিলাম, তখন আমার অনেক বড় বড় প্রজেক্ট ছিল, তখন আমি এগুলোর মধ্যে আবার ফিরে এলাম।

অভিনেতা আরও বলেন, বিয়ে হয়তো করব। কাউকে পছন্দ হয়ে গেলে, তার সঙ্গে বাকি জীবনটা হয়তো কাটাতে পারি। না হলে আমি এতগুলো প্রজেক্ট করেছি যে এদের সঙ্গে আমার জীবন কেটে যাবে। আমার বন্ধুদের একটি এতিমখানা আছে, চিন্তা করলাম, একজন বাচ্চাকে বড় না করে বেশ কিছু বাচ্চাকে বড় করি। আমি সব সময়ই অনেক আনন্দে থাকি, সৎ থাকি।

ডিভোর্স প্রসঙ্গে শিমুল বলেন, একটা বড় হুমকি ছিল, ডিভোর্সটা হয়ে গেলে মানুষ কী বলবে? কিছুই হয় না আসলে, এর চেয়েও খারাপ খারাপ জিনিস হয়। আমি জীবনে কোনো দিন ফাঁকি দিইনি। আমার সামনে থেকে কোনো প্রাণী-মানুষ অভুক্ত যায়নি।

অভিনয়ে অনিয়মিত থাকার ব্যাপারে তিনি বলেন, আগে ছিল বেগ, এখন হচ্ছে আবেগ। সব সময়ই বেছে বেছে কাজ করেছি আমি। টাকার জন্য কখনোই কাজ করিনি। আমরা ভালোবেসে কাজ করতাম। তবে এখন সময়টা পাল্টেছে। ভালো কাজের জন্য পরিবেশটাও জরুরি। ক্ষমতা, অর্থ থেকে শিল্পীদের একটু দূরে থাকাই উচিত।

সিনেমা পরিচালনা নিয়ে শিমুল বলেন, সিনেমা বানানোর পরিকল্পনা তো রয়েছেই। সেই স্বপ্ন ২০ থেকে ২৫ বছরের। প্রাথমিক কাজ শুরু করেছি। মরে যাওয়ার আগে অন্তত একটা-দুটো-তিনটে সিনেমা বানাব।

ইত্তেফাক/এসজেড

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন