সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

বাইডেনের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে রাফায় হামলা চালালো ইসরায়েল

আপডেট : ০৯ মে ২০২৪, ২০:৫২

গাজার দক্ষিণের শহর রাফায় হামলা চালালে ইসরায়েলকে অস্ত্র ও গোলাবারুদ সরবরাহ বন্ধের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে বৃহস্পতিবার ট্যাংক ও যুদ্ধবিমান দিয়ে পূর্ব রাফায় হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। খবর রয়টার্সের।

মিসরের কায়রোতে যুদ্ধবিরতির আলোচনা অব্যাহত থাকায় ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাস ও ইসলামিক জিহাদ বলেছে, তাদের যোদ্ধারা শহরের পূর্ব উপকণ্ঠে ইসরায়েলি ট্যাংকগুলোতে অ্যান্টি ট্যাংক রকেট ও মর্টার নিক্ষেপ করেছে।

গাজার সবচেয়ে বড় শহুরে এলাকা রাফার বাসিন্দারা এবং চিকিত্সকরা বলেছেন, একটি মসজিদে ইসরায়েলি হামলায় কমপক্ষে তিনজন নিহত ও অনেকে আহত হয়েছে। শহরটি এখনো ইসরায়েলি স্থল বাহিনী দখলে নিতে পারেনি।

ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, মসজিদের মিনারটি ধ্বংসস্তূপে পড়ে আছে, দুটি লাশ কম্বলে মোড়ানো ও একজন আহত ব্যক্তিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

শহরের পূর্ব প্রান্তের বাসিন্দারা বলেছেন, হেলিকপ্টার থেকে গুলি চালানো হয়েছে। কয়েকটি এলাকার বাড়ির ছাদে কিছু ড্রোন উড়তে দেখা গেছে।

ইসরায়েল বলেছে, হামাস যোদ্ধারা রাফাতে লুকিয়ে আছে। এখানে অনেকে আশ্রয় নিয়েছে তাদের নিরাপত্তার জন্য হামাসকে নির্মূল করতে হবে।

আশ্রয় নেওয়াদের একজন মোহাম্মদ আবদের-রহমান। তিনি রয়টার্সকে বলেছেন, তারা আশঙ্কা করছেন বোমা হামলার মাধ্যমে শহরটিতে আক্রমণের পূর্বাভাস দিয়েছে ইসরায়েল।

কায়রোতে যুদ্ধবিরতি আলোচনার কিছুটা অগ্রগতি হয়েছে। কিন্তু কোনো চুক্তি হয়নি বলে মিসরের দুটি নিরাপত্তা সূত্র রয়টার্সকে জানিয়েছে।

হামাসের প্রতিনিধি দল পরামর্শের জন্য দোহা চলে গেছে। চুক্তি না হওয়ার জন্য তারা ইসরায়েলকে দায়ী করছে।

ইত্তেফাক/এসএটি