সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

যুক্তরাষ্ট্রের ‘অন্যায্য’ শুল্কবৃদ্ধির ঘোষণার জবাব দিলো চীন

আপডেট : ১৪ মে ২০২৪, ১৮:২৮

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন চীন থেকে বৈদ্যুতিক গাড়ি এবং অন্যান্য পণ্য আমদানিতে বড় রকমের শুল্ক আরোপ করেছেন। এই শুল্ককে অন্যায্য উল্লেখ করে বেইজিং বলেছে, তারা ন্যায্য অধিকার রক্ষার জন্য সব প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে। খবর সিএনএন।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (১৪ মে) নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, চীন একতরফাভাবে মার্কিন শুল্ক আরোপের বিরোধিতা করে যা বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নিয়ম লঙ্ঘন করে। আমরা বৈধ অধিকার রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেবে। 

এর আগে চীন থেকে আমদানিকৃত ইলেকট্রিক গাড়ি, কম্পিউটার চিপ এবং চিকিৎসাপণ্যসহ বেশ কয়েকটি পণ্যের ওপর শুল্ক বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তার অর্থনৈতিক নীতিমালার সমালোচনাকারীদের জবাব দিতে এবং আসন্ন মার্কিন নির্বাচনে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে নতুন এই পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

পাশাপাশি ইস্পাত, অ্যালুমিনিয়াম, সেমিকন্ডাক্টর, ব্যাটারি, গুরুত্বপূর্ণ খনিজ, সৌরকোষ এবং ক্রেনসহ বেশ কিছু পণ্যের ওপরও বাড়ানো হয়েছে শুল্ক। 

হোয়াইট হাউস এক বিবৃতিতে জানিয়ছে, সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আরোপ করা শুল্ক বহাল থাকবে এবং নির্দিষ্ট কিছু পণ্যের ওপর শুল্ক বাড়বে।

বাইডেন প্রশাসন এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের কর্মকর্তারা আশঙ্কা করছেন যে, বেইজিং বিশ্ববাজারে অতিরিক্ত পণ্য বাজারজাত করে নিজেদের ক্ষয়িষ্ণু অর্থনৈতিক সমস্যা মোকাবেলা করার চেষ্টা করছে। এজন্য জি-৭ এর নেতারা নিজেদের শিল্প রক্ষার উপায় নিয়ে আলোচনা করতে আগামী মাসে বৈঠক করার কথা রয়েছে।

ইত্তেফাক/এনএন