শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

সৌদি বাদশাহ অসুস্থ

আপডেট : ১৯ মে ২০২৪, ১৯:২৫

শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান। তিনি জ্বর ও অস্থিসন্ধির ব্যথায় ভুগছেন বলে রোববার জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। এক মাসের কম ব্যবধানে দ্বিতীয়বারের মতো মেডিকেল পরীক্ষা করাবেন তিনি।

সৌদি সরকারি বার্তা সংস্থ এসপিএ জানিয়েছে, রয়্যাল কোর্টের বিবৃতিতে বলা হয়েছে জেদ্দার আল-সালাম প্যালেসের একটি ক্লিনিকে বাদশাহর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাদশাহ সালমান জ্বর ও অস্থিসন্ধির ব্যথায় ভুগছেন। তার মেডিকেল টিম স্বাস্থ্যের অবস্থা নির্ণয় করতে কিছু পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বাদশাহ সালমান (৮৮) ২০১৫ সাল থেকে সিংহাসনে রয়েছেন। তার ছেলে মোহাম্মদ বিন সালমানকে (৩৮) ২০১৭ সালে ক্রাউন প্রিন্স হিসেবে মনোনিত করা হয়। বর্তমানে তিনি সৌদি আরবে ডিফ্যাক্টো শাসক হিসেবে কাজ করছেন।

সাধারণত বাদশাহর স্বাস্থ্য নিয়ে তেমন খবর প্রকাশ করা হয় না। তবে রয়্যাল কোর্ট গত এপ্রিলে বলেছিল, বাদশাহ নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কিং ফয়সাল স্পেশালাইজড হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর একদিন পরেই হাসপতাল ছাড়েন তিনি।

এর আগে ২০২২ সালের মে মাসে বাদশাহ সালমানকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। ওই সময় তার কোলোনস্কপি করা হয়েছিল। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য এক সপ্তাহের বেশি সময় হাসপাতালে ছিলেন তিনি।

২০২২ সালের মার্চেও সালমানকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল। ওই সময় কিছু সফল পরীক্ষা করা হয় এবং হৃদ্‌যন্ত্রের পেসমেকারের ব্যাটারি পরিবর্তন করা হয়। ২০২০ সালে পিত্তথলি অপসারণের জন্য অস্ত্রোপচার করা হয়।

সালমান সৌদি বাদশাহ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার আগে কয়েক দশক ধরে রিয়াদের গভর্নর পদে ছিলেন। তেলসমৃদ্ধ আরব দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

সালমানের শাসনামলে সৌদি আরবে বেশ কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। তিনি বেশ কিছু উচ্চাকাঙ্ক্ষী সামাজিক ও অর্থনৈতিক সংস্কার কর্মসূচি নিয়েছেন। এসবের বেশির ভাগেই তার ছেলে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের পরামর্শে করা হয়। সালমান তেলের ওপর সৌদি আরবের নির্ভরশীলতা কমাতে অর্থনীতির অন্য খাতে নজর দেওয়ার চেষ্টা করছেন।

ইত্তেফাক/এসএটি