বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

স্কুল গেটে ট্রাকের ধাক্কায় হাসপাতালে শিক্ষার্থী, নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন

আপডেট : ০৩ জুন ২০২৪, ২০:০৫

নিরাপদ সড়ক চাই, স্কুলছাত্রী আহত হওয়ায় ট্রাক চালকের বিচার চাই। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে সড়ক অব্যবস্থাপনার অবসান চাই। এ রকম বেশ কিছু দাবি নিয়ে মানববন্ধন করেছে রহমতুল্লা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (৩ জুন) সকাল ১০টায় রাজশাহীর বাঘা সদরে অবস্থিত প্রতিষ্ঠানটির সামনে এ মানববন্ধন করে শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, রোববার (২ জুন) সকালে পাথরবোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় চাপায় নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী সমাপ্তি কুমার সরকার গুরুতর আহতর হয়ে রামেক হাসপাতালে সংজ্ঞাহীন থাকার প্রতিবাদে সোমবার এই মানববন্ধনসহ প্রতিবাদ সমাবেশ করেন শত-শত শিক্ষার্থী। একইসঙ্গে তারা সমাবেশ করে ট্রাক চালকের বিচার দাবিসহ নিরাপদ সড়ক এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এলাকায় সড়ক অবমুক্ত করার দাবি জানায়। 

সমাবেশে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী আদিবা ইসনাত, ফাতিমা রনক, সুমাইয়া আফরোজ ও তাসমিম তাবাসসুম বলেন, রোববার দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাকচালক আমাদের সহপাঠী শিক্ষার্থী সমাপ্তি কুমার সরকারকে ধাক্কা দিয়ে গুরুত্বর আহত ও রক্তাক্ত করেছে। বর্তমানে সে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। এ কারণে আজ প্রতিবাদ ও ট্রাক চালকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে আমরা নিরাপদ সড়কের দাবিসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এলাকায় সড়ক অবমুক্ত করার দাবি নিয়ে সমাবেশ ও মানববন্ধন করছি। 

রহমতুল্লা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল ইসলাম বলেন, স্কুল গেটের সামনের রাস্তায় আমের হাট, ঢাকাগামী বাস-ট্রাক দাঁড় করিয়ে রাখাসহ নানা অব্যবস্থাপনার ফলে শিক্ষার্থী এবং এলাকার সাধারণ মানুষকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার হয়। আমরা এর প্রতিকার চাই। এ কারণে মূলত শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করছে। তিনি এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। 

বাঘা থানার ওসি (তদন্ত) সোয়েব খান বলেন, গত কালকের ঘটনায় সড়ক পরিবহন আইনে মামলা হয়েছে। আমরা ট্রাকচালককে আটক করে আদালতে পাঠিয়েছি। মানববন্ধনে ছাত্রীদের দাবির প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

ইত্তেফাক/পিও