দাফনের সময় নড়ে ওঠে শিশুকে বাঁচানো হবে ‘মিরাকল’

দাফনের সময় নড়ে ওঠে শিশুকে বাঁচানো হবে ‘মিরাকল’
ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত ঘোষিত নবজাতক দাফনের সময় নড়ে ওঠে। এ ঘটনায় ব্যর্থতার দায় নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে তাকে বাঁচানো হবে মিরাকল।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সংবাদ সম্মেলন করেন হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন।

তিনি বলেন, যেহেতু শিশুটি আবারও বেঁচে ফিরেছে। সেক্ষেত্রে সে জীবিত ছিল। আর এজন্য আমরা এ ঘটনায় ব্যর্থতার দায় নিচ্ছি। তদন্ত কমিটি আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতার বিষয়ে সুপারিশ করেছ। আমরাও কিছু সুপারিশ করেছি। সেগুলো দ্রুত সমাধান করবো। ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের ঘটনা না ঘটে, সে বিষয়ে সচেতন থাকবো।

এ ঘটনায় এখনই কোনও চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না উল্লেখ করে ঢামেক পরিচালক বলেন, আমরা কোনও চিকিৎসকের ব্যর্থতায় তার বিরুদ্ধে এখনই সরাসরি অভিযোগ আনছি না। আরও কিছু তদন্ত বাকি রয়েছে। তারপরে আমরা সিদ্ধান্ত নেব।

তদন্ত কমিটির প্রধান অধ্যাপক ডা. মনীষা ব্যানার্জী বলেন, শিশুটি ভূমিষ্ঠ হয়েছে ২৬ সপ্তাহে। বর্তমানে সে ভালোর দিকে। তবে আশঙ্কাজনক। এ সব শিশুর যেকোনো সময় অবস্থা খারাপ হতে পারে। তাকে বাঁচানোও হবে আমাদের জন্য মিরাকল।

তিনি জানান, এখন শিশুটিকে অক্সিজেনের পাশাপাশি অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে। দু-একদিন পর তাকে অল্প করে খাবার দেওয়া হতে পারে।

১৬ অক্টোবর ভোরের দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বাভাবিকভাবে একটি কন্যাসন্তান প্রসব করেন শাহিনুর। তবে জন্মের পর ওই নবজাতককে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানান, শিশুটি মৃত অবস্থায় হয়েছে। এরপর ওই নবজাতককে দাফনের জন্য একটি প্যাকেটে ভরে আজিমপুর কবরস্থানে নিয়ে যান তার বাবা বাসচালক ইয়াসিন। সেখানে দাফনের জন্য টাকা দিতে না পারায় বসিলা কবরস্থানে নিয়ে যান তিনি। সেখানে যাওয়ার পর হঠাৎ শিশুটি নড়ে ওঠে ও কান্না করে। পরে তাকে আবারও ঢামেকে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন তিনি।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত