নারায়ণগঞ্জ মসজিদে বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ ৩৭

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার প্রতি  ৫ লাখ টাকা করে প্রদানের আদেশ স্থগিত

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার প্রতি  ৫ লাখ টাকা করে প্রদানের আদেশ স্থগিত
নারায়ণগঞ্জ বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত মসজিদ। ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩৭ জনের পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদানের হাইকোর্টের আদেশ ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করেছে আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত। একইসঙ্গে ওইদিন এ সংক্রান্ত স্থগিত আবেদনের উপর প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে শুনানির জন্য দিন ধার্য করে দেওয়া হয়েছে।

তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের করা এক আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান রবিবার এই আদেশ দেন। আদালতে তিতাসের পক্ষে সিনিয়র আইনজীবী এএম আমিন উদ্দিন ও রিটকারী পক্ষে তৈমুর আলম খন্দকার শুনানি করেন।

শুনানিতে এ.এম আমিন উদ্দিন বলেন, মসজিদে বিস্ফোরণে হতাহতের ঘটনায় কার দায় রয়েছে সেটা এখনো নিরূপণ করা হয়নি। নিরূপণ না করার আগেই আমাকে ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া হাইকোর্টে আমি শুনানির সুযোগ পাইনি। আমার বক্তব্য গ্রহণ না করেই ক্ষতিপূরণ প্রদান করতে বলেছে। এরপরই চেম্বার জজ আদালত হাইকোর্টের আদেশ পহেলা ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করে দেয়। তখন রিটকারী আইনজীবী তৈমুর আলম খন্দকার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে আবেদনটি শুনানির দিন এগিয়ে আনার আর্জি জানান। কিন্তু আদালত দিন ধার্যের পূর্বের আদেশই বহাল রাখেন।

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩৭ জনের পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদানের জন্য গত ৯ সেপ্টেম্বর তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছিলো হাইকোর্ট। উচ্চ আদালতের এই আদেশ স্থগিতের জন্য আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতে আবেদন করে তিতাস গ্যাস।

গত ৪ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিমতল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে গ্যাস লাইন লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ হন ৩৭ জন মুসল্লি। তাদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ২৮ জন। এ ঘটনায় নিহতদের পরিবার প্রতি ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তৈমুর আলম খন্দকার। ওই রিটের আদেশে হাইকোর্ট ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের পরিবার প্রতি ৫০ লাখ টাকা করে কেন ক্ষতিপূরণ প্রদান করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত