করোনাকালে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে আপিল বিভাগে নিষ্পত্তি হয়েছে ৪ হাজার, বিচারাধীন ১৫ হাজার

করোনাকালে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে আপিল বিভাগে নিষ্পত্তি হয়েছে ৪ হাজার, বিচারাধীন ১৫ হাজার
বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্ট। ছবি: সংগৃহীত

করোনাকালে দীর্ঘ ৫ মাস বন্ধ ছিল দেশের সবোর্চ্চ আদালত। কিন্তু কোর্ট খোলার পর গত আড়াই মাসে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ নিষ্পত্তি করেছে চার হাজার মামলা। গতকাল শনিবার সুপ্রিম কোর্ট থেকে পাঠানো এ সংক্রান্ত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

করোনা সংক্রমণ থেকে বিচারক, আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থী জনগণকে সুরক্ষা দিতে চালু করা হয় ভার্চুয়াল বিচার পদ্ধতি। ওই পদ্ধতির আওতায় হাইকোর্টের পাশাপাশি আপিল বিভাগের দুটি বেঞ্চে বিচার কাজ পরিচালিত হয়। এতে আইনজীবীরা কোর্টে না এসেও যে কোন স্থান থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে মক্কেলের পক্ষে মামলা পরিচালনা করছেন। এছাড়া সাংবাদিকরাও শুনানি প্রত্যক্ষ করার সুযোগ পাচ্ছেন।

সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান কর্তৃক দেওয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আপিল বিভাগের বিচারপতি এবং আইনজীবীদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় করোনা মহামারির মধ্যেই ভার্চুয়াল মাধ্যমে বিচারপ্রার্থীদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করেছেন। গত ১৩ জুলাই থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ে ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ ৪ হাজার ৭৩টি মামলা নিষ্পত্তি করেছে।

আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলা ১৫ হাজার

গত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ছিল ২৩ হাজার ৬১৭টি। কিন্তু পরবর্তীতে নিষ্পত্তিকৃত মামলার সংখ্যাসহ নির্ভুল এবং কার্যকর গণনায় পরিলক্ষিত হয় যে, গত ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ১৫ হাজার ৪৬০টি। গতকাল একই বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/আরআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত