ঢাকা সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬
২৩ °সে

সাঁওতাল হত্যা মামলার চার্জশিটের বিরুদ্ধে নারাজি পিটিশন, শুনানি ৪ নভেম্বর

সাঁওতাল হত্যা মামলার চার্জশিটের বিরুদ্ধে নারাজি পিটিশন, শুনানি ৪ নভেম্বর
রায় ঘোষণার পর আসামি স্থানীয় শহীদ মিনার চত্বরে সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: ইত্তেফাক

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল পল্লীতে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও তিন সাঁওতাল হত্যা মামলার আদালতে পিবিআই'র দাখিল করা অভিযোগপত্রের (চার্জশিট) বিরুদ্ধে নারাজি পিটিশন দাখিল করা হয়েছে।

আজ বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক পার্থ ভদ্র পিটিশনটি আমলে নিয়ে শুনানি শেষে আগামী ৪ নভেম্বর শুনানির দিন ধার্য করেন।

মামলাটির বাদী থমাস হেমব্রনের পক্ষে নারাজি পিটিশন আদালতে দাখিল করেন সুপ্রিম কোর্টের ব্যারিস্টার জেড আই খাঁন পান্না। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাবুসহ স্থানীয় আরও কয়েকজন আইনজীবী।

পরে ব্যারিস্টার জেড আই খাঁন পান্না সাংবাদিকদের বলেন, নারাজি পিটিশনে উল্লেখ করা হয়েছে পিবিআই’র দাখিল করা তদন্ত প্রতিবেদনে (চার্জশিট) মনগড়া, পক্ষপাতমূলক, কথিত এবং সর্বোপরি ঘটনাকে আড়াল করা হয়েছে। যথেষ্ট সাক্ষ্য, প্রমাণ, তথ্য-উপাত্য এবং সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকা সত্বেও এজাহার নামীয় মুল আসামিসহ জড়িত কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা ও মিলের কর্মকর্তা-শ্রমিক নেতাদের এই চার্জশিটে নাম বাদ রেখে তাদের রক্ষার চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শুধু তাই নয়; এই চার্জশিটে বাদী পক্ষের লোকজনের নাম এবং জড়িত নয় এমন কয়েকজনকে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া পিবিআই'র মনগড়া এই কল্পকাহিনী বর্ণনার মাধ্যমে আদালতে মিথ্যা প্রতিবেদন দাখিলের কারণে বাদীসহ ভুক্তভোগীরা অপূরণীয় ক্ষতিগ্রস্ত ও ক্ষুব্ধ হয়েছেন। তাই পুর্ণ:তদন্ত সাপেক্ষে জড়িত আসামিদের অর্ন্তভুক্তের দাবি জানিয়ে বাদীর পক্ষে আদালতে এই পিটিশন দাখিল করা হয়। পিটিশনে আসামিদের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রমাণ ও যুক্তি উপস্থাপন উল্লেখ করে বিচার বিভাগীয় পুর্ণ:তদন্তও চাওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: তিন প্রভাবশালী দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের বৈঠক

শেষে স্থানীয় শহীদ মিনার চত্বরে সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ঢাকা থেকে আসা আইনজীবী ও সাঁওতাল নেতারা অংশ নেন।

সমাবেশে বক্তারা পূর্ণতদন্ত পূর্বক চার্জশিটে প্রকৃত আসামিদের অর্ন্তভুক্তসহ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিচার ও সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর বাপ-দাদার সম্পত্তি ফেরতের দাবি জানান। একই সঙ্গে সাঁওতালদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিও জানানো হয়। অবিলম্বে এসব দাবি বাস্তবায়ন করা না হলে কঠোর আন্দোলন সংগ্রামের হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

ইত্তেফাক/কেকে

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন