বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

 মোবাইল ব্যাংকিং : নভেম্বরে অ্যাকাউন্ট-সংখ্যা ও গড় লেনদেন বেড়েছে

 মোবাইল ব্যাংকিং : নভেম্বরে অ্যাকাউন্ট-সংখ্যা ও গড় লেনদেন বেড়েছে
প্রতীকি ছবি

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের অ্যাকাউন্ট-সংখ্যা ও লেনদেনের পরিমাণ বাড়ছে। মোবাইল ব্যাংকিংয়ে সুবিধার পাশাপাশি কেনাকাটায় নানারকম অফার থাকায় মানুষ এ সেবার প্রতি ঝুঁকছে। ফলে প্রতি মাসেই এ সেবায় হাজার হাজার গ্রাহক অন্তর্ভুক্ত হচ্ছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাবে, ২০১৯ সালের নভেম্বর শেষে দেশে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের (এমএফএস) গ্রাহক দাঁড়িয়েছে ৭ কোটি ৮৬ লাখ। অন্যদিকে, নভেম্বর মাসে এ সেবায় দৈনিক লেনদেন হয়েছে প্রায় ১ হাজার ২৬৪ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বর্তমানে মোট ১৬টি ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিং করছে। এসব প্রতিষ্ঠানে নভেম্বর পর্যন্ত মোট নিবন্ধিত হিসাবের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ কোটি ৮৫ লাখ ৯৪ হাজার। এর মধ্যে সক্রিয় হিসাব রয়েছে ৩ কোটি ৫০ লাখ ৯২ হাজার। এ সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং এজেন্টের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৬৫ হাজার ৪৭১ জন। নভেম্বর মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দৈনিক লেনদেনের পাশাপাশি মোট লেনদেনও বেড়েছে।

তথ্য অনুযায়ী, নভেম্বর মাস জুড়ে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৭ হাজার ৯১৮ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। অক্টোবরে এর পরিমাণ ছিল ৩৭ হাজার ৭৬২ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। অর্থাত্ অক্টোবরের তুলনায় নভেম্বরে লেনদেন বেড়েছে দশমিক ৪০ শতাংশ। এ মাসে গড় লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ২৬৩ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। অক্টোবরে ছিল ১ হাজার ২১৮ কোটি ১৫ লাখ টাকা। এ হিসাবে অক্টোবরের তুলনায় নভেম্বর দৈনিক লেনদেন বেড়েছে ৩ দশমিক ৮০ শতাংশ। নভেম্বর মাস জুড়ে মোবাইল ব্যাংকিং হিসেবে টাকা উত্তোলনের পরিমাণ বাড়লেও কমেছে জমার পরিমাণ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে দেখা গেছে, নভেম্বর মাস জুড়ে মোবাইল ব্যাংকিং হিসাবগুলোতে ক্যাশইন হয়েছে ১৩ হাজার ৪০৭ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। অক্টোবরে যার পরিমাণ ছিল ১৩ হাজার ৬২৫ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। এক মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ক্যাশইন কমেছে ১ দশমিক ৬০ শতাংশ। নভেম্বর মাসে মোট উত্তোলন করা বা ক্যাশ আউট হয়েছে ১২ হাজার ৬৯৭ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। অক্টোবর মাস জুড়ে উত্তোলন করা হয়েছিল ১২ হাজার ৬৪৫ কোটি ১৫ লাখ টাকা। প্রতিবেদন অনুযায়ী, নভেম্বর মাসে ব্যক্তি হিসাব থেকে ব্যক্তি হিসাবে অর্থ স্থানান্তর হয়েছে প্রায় ৯ হাজার ১০০ কোটি টাকা। আগের মাস অক্টোবরের চেয়ে যা ১ দশমিক ২০ শতাংশ বেশি।

আরো পড়ুন : অনুকরণ না করে উদ্ভাবনে মনোযোগী হতে হবে : জয়

আলোচ্য মাসে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বেতন-ভাতা বিতরণ হয়েছে ৮৭০ কোটি ৩ লাখ টাকা। বিভিন্ন সেবার বিল পরিশোধ করা হয়েছে ৪৬৫ কোটি ৪৩ লাখ টাকা, যা আগের মাসে ছিল প্রায় ৫০০ কোটি টাকা। নভেম্বরে কেনাকাটার বিল পরিশোধ করা হয়েছে ৪৩৬ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। সরকারি পরিশোধের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৯৪ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। আর এ মাসে অন্যান্য বাবদ লেনদেন হয়েছে ৬২১ কোটি ২৮ লাখ টাকা।

জানা গেছে, ২০১১ সালের মার্চে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক প্রথমবারের মতো দেশে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করে। এ পর্যন্ত ৫৯টি ব্যাংকের মধ্যে ২৮টি ব্যাংককে এই সেবা চালুর অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এর মধ্যে ২০টি ব্যাংক সেবাটি চালু করতে পারলেও পরবর্তী সময় চারটি ব্যাংক সেবাটি বন্ধ করে দেওয়ায় এখন ১৬টি ব্যাংক এ সেবা দিচ্ছে। ২০১৩ সালের নভেম্বরে প্রথম এ সেবার নিবন্ধিত গ্রাহকসংখ্যা ১ কোটি ছাড়ায়।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত