ঢাকা সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬
২৬ °সে


৫ শতাংশ অ্যাডভান্স ট্যাক্স থেকে অব্যাহতি পেল যেসব খাত

৫ শতাংশ অ্যাডভান্স ট্যাক্স থেকে অব্যাহতি পেল যেসব খাত
ছবি : সংগৃহীত

গত ২৯ জুন অর্থবিল পাশ করার সময় আমদানিকারকদের দাবি অনুযায়ী বেশকিছু খাতে অ্যাডভান্স ট্যাক্স প্রত্যাহার করা হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো মূলধনি যন্ত্রপাতি। এছাড়া তুলাসহ আরো কাঁচামাল থেকেও অগ্রিম কর প্রত্যাহার করা হয়েছে। এটি ১৩ জুন থেকেই কার্যকর হবে। এ তালিকায় রয়েছে সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা, জাতিসংঘভুক্ত সংস্থা, দূতাবাস, বিশেষ সুবিধাপ্রাপ্ত ব্যক্তি ও সংস্থা এবং সরকার কর্তৃক অব্যাহতিপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান এবং বিক্রয়ের জন্য নয়, এমন আমদানিকৃত পণ্য। বন্ড লাইসেন্স বা বন্ড নিবন্ধনপ্রাপ্ত সরাসরি রপ্তানিমুখী শিল্পপ্রতিষ্ঠান, প্রচ্ছন্ন রপ্তানিমুখী শিল্পপ্রতিষ্ঠান ও ডিপ্লোমেটিক বন্ডেড ওয়্যারহাউজ কর্তৃক আমদানিকৃত পণ্য। রাষ্ট্রপতির নামে আমদানিকৃত পণ্য, দৃষ্টি ও শ্রবণপ্রতিবন্ধীদের জন্য আমদানিকৃত পণ্য, ডিফেন্স স্টোর হিসেবে আমদানি, সরকারি প্রকল্পের আওতায় আমদানি, তুলা, সিনথেটিক স্ট্যাপল ফাইবারসহ কিছু টেক্সটাইলের কাঁচামাল, অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রপাতি, কৃষিকাজে ব্যবহার হওয়া কীটনাশক, ছত্রাকনাশক ও আগাছানাশক। এছাড়া বেশকিছু ওষুধের উপকরণের ওপর থেকে অগ্রিম কর প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ তালিকায় রয়েছে, ম্যালেরিয়া, যক্ষ্মা, ক্যানসার ও কুষ্ঠরোগ নিরোধক, অ্যান্টিবায়োটিক, কিডনি ডায়ালাইসিস সল্যুশন, ছেরা টক্সিন ও কার্ডিওভাসকুলার ওষুধ, অ্যান্টি হেপাটিক, হোমিওপ্যাথিক, বায়োকেমিক ও সাইকোট্রপিক ওষুধসহ আরো কিছু ওষুধ ও এর উপকরণ।

অতীতে বাণিজ্যিক আমদানিকারকরা আমদানি পর্যায়ে অগ্রিম ভ্যাট (অ্যাডভান্স ট্রেড ভ্যাট বা এটিভি) পরিশোধ করতেন। অতীতে ৩ শতাংশ পরিশোধের সুযোগ থাকলেও গত অর্থবছরে এটি ৫ শতাংশ ছিল। এর বাইরে আমদানি পর্যায়ে অগ্রিম আয়করও (অ্যাডভান্স ইনকাম ট্যাক্স বা এআইটি) ৫ শতাংশ হারে কর্তন করা হতো। আমদানিকারকদের পরবর্তীতে চালানপত্র দেখিয়ে ওই ভ্যাট-ট্যাক্স সমন্বয় করার সুযোগ আইনে ছিল। যদিও বেশিরভাগ আমদানিকারক বা ব্যবসায়ীরা যথাযথ চালানপত্র নিয়ে অগ্রিম পরিশোধিত ভ্যাট বা কর সমন্বয়ের জন্য আসতেন না। আমদানি পর্যায়ে পরিশোধিত ভ্যাট বা আয়কর অলিখিতভাবে চূড়ান্ত হিসেবেই গণ্য করা হতো। গত ১৩ জুন প্রস্তাবিত বাজেটে সরকার এটিভির বদলে অ্যাডভান্স ট্যাক্স বা আগাম কর নামে (এটি) তা ঘোষণা করেছে। প্রস্তাব অনুযায়ী, কেবল বাণিজ্যিক পণ্য নয়, সব ধরনের আমদানি পণ্যের ক্ষেত্রেই অ্যাডভান্স ট্যাক্স পরিশোধ করতে হবে। পরবর্তী সময়ে যথাযথ প্রক্রিয়ায় চালানসহ রিটার্ন জমা দিয়ে পরিশোধিত ঐ কর ফেরত নিতে পারবে। অবশ্য রপ্তানির জন্য আমদানিকৃত কাঁচামালসহ বন্ড সুবিধার আওতায় থাকা পণ্যসামগ্রীকে এই ব্যবস্থা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

ইত্তেফাক/এএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৪ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন