ঢাকা রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬
৩৪ °সে


বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নালিশের ব্যাখ্যা দিলেন প্রিয়া সাহা

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নালিশের ব্যাখ্যা দিলেন প্রিয়া সাহা
প্রিয়া সাহা। ছবি: ভিডিও থেকে নেওয়া

ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নির্যাতনের অভিযোগের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছেন প্রিয়া সাহা। এক ভিডিও বার্তায় তিনি এই ব্যাখ্যা দেন। তার দাবি, ৩৭ মিলিয়ন হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষ নিখোঁজ হওয়ার যে তথ্য তিনি ট্রাম্পকে দিয়েছেন, তা সরকারি পরিসংখ্যান থেকেই নেওয়া।

একজন সাংবাদিককে মোবাইলে সাক্ষাৎকার দেন প্রিয়া। সেই ভিডিও রবিবার তার এনজিও সংস্থা শারির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করা হয়।

সেখানে সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে প্রিয়া সাহা বলেন, ‘বাংলাদেশের জনসংখ্যা যেভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে, ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের হার যদি দেশভাগের সময়ের মতই ২৯.৭ % থাকত, তাহলে তাদের সংখ্যাটাও এখন বেশি হত। এখন এই যে নাই, এইটা যে কমে গেছে, সেটাই আমি বোঝাতে চেয়েছি।’

রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি আমি কোনো রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে চাইনি। আমার নিজের গ্রামের কথা বলি। আমার গ্রামের বাড়ি পিরোজপুরে। সেখানে ২০০৪ সালে ৪০টা (হিন্দু) পরিবার ছিলো, এখন ১৩টা পরিবার আছে। এই মানুষগুলো কোথায় গেল, কোথায় আছে, তা তো আপনাদের দেখার কথা বা রাষ্ট্রের দেখার কথা।’

ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে কেন তিনি এমনটি বললেন-এর জবাবে প্রিয়া সাহা বলেন, ‘এই কথাগুলো তো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কথা। ২০০১ সালে যখন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্বাচনোত্তর চরম নির্যাতন চলছিল ৯৪ দিন ধরে, তখন আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তখন বিরোধী দলীয় নেত্রী ছিলেন। তিনি বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের রক্ষা করার জন্য সারা পৃথিবীতে ঘুরেছেন। সমস্ত জায়গায় বক্তব্য দিয়েছেন। আমি তার কথায় অনুপ্রাণিত হয়ে তার অনুসরণে আমি বলেছি। যেকোনো অন্যায়ের বিরুদ্ধে যেকোনো জায়গায় বলা যায়- এটা আমি তার কাছে শিখেছি।’

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২০ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন