২০২০ সালের সবচেয়ে পছন্দের স্মার্টফোন রিয়েলমি ৫ আই

২০২০ সালের সবচেয়ে পছন্দের স্মার্টফোন রিয়েলমি ৫ আই
স্মার্টফোন রিয়েলমি ৫ আই। ছবি : সংগৃহীত।

বাংলাদেশে যাত্রা শুরুর একবছরেরও কম সময়ে দেশের শীর্ষ চার মোবাইল ব্র্যান্ডের একটিতে পরিণত হয়েছে রিয়েলমি। রিয়েলমি কাউন্টার পয়েন্ট এই তথ্য দিয়েছে। পাশাপাশি দেশের তরুণদের মন জয় করে তাদের কাছে সেরা পছন্দের ব্র্যান্ডের স্বীকৃতি পেয়েছে এটি।

২০২০ সালে রিয়েলমি বাংলাদেশের বাজারে এনেছে রিয়েলমি ৫ আই। এটি এতোই আলোড়ন তুলেছে যে, ২০২১ সালেও এর প্রভাব বিদ্যমান। সেরা স্পেসিফিকেশনস, সেরা ডিজাইন, সেরা দাম— সব মিলিয়ে রিয়েলমি ৫ আই’র জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। এতে রয়েছে স্টাইলিশ সানরাইজ ডিজাইন প্যাটার্ন এবং কোয়াড ক্যামেরা সেট-আপ। এছাড়া আছে স্ন্যাপড্রাগনের পাওয়ারফুল ৬৬৫ এআইই প্রসেসর আর ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের বিশাল ব্যাটারি। এর বাজারমূল্য ১২ হাজার ৯৯০ টাকা।

২০২০ সালের মে মাসে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স ওয়েবসাইট পিকাবুতে ‘কোয়াড ক্যামেরা ব্যাটারি কিং’ রিয়েলমি ৫ আই অবমুক্ত করা হয়। পিকাবুর তথ্যানুযায়ী, রিয়েলমি ৫ আই তাদের প্ল্যাটফর্মে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক স্মার্টফোন বিক্রির রেকর্ড গড়েছে।

বাংলাদেশের স্মার্টফোন উৎসাহীরা বিশেষ করে যুবসমাজ জনপ্রিয় এই হ্যান্ডসেট কিনতে দারুণ আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ফলে কয়েকদিনের মধ্যে রিয়েলমি ৫ আই’র পুরো স্টক শেষ হয়ে যায়।

আরো পড়ুন: অভিবাসীদের ৮ বছর মেয়াদে নাগরিকত্ব দেবেন বাইডেন

বাজার গবেষকদের মতে, “এমন সাফল্যর পেছনে রয়েছে স্মার্টফোনটির দারুণ ফিচারের চমৎকার বাস্তবায়ন। বাজারে আসার পর থেকে রিয়েলমি ৫ আই’র উচ্চ চাহিদা এখনো অব্যাহত রয়েছে। তাই রিয়েলমি ৫ আই আমাদের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ অনুযায়ী, ২০২০ সালের সেরা স্মার্টফোন। ”

তরুণরা রিয়েলমির নতুন স্মার্টফোনের জন্য উন্মুখ হয়ে থাকেন। ২০২০ সালের মাঝামাঝি রিয়েলমি বাজারে নিয়ে আসে আরেক চমক রিয়েলমি ৭ প্রো। এটি দেশের দ্রুততম চার্জিং স্মার্টফোন। ৬৫ ওয়াট সুপারডার্ট চার্জিং ক্ষমতাযুক্ত ফোনটির ৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারি মাত্র ৩৪ মিনিটে পুরো ১০০ শতাংশ চার্জ হয়ে যায়। এছাড়া মাত্র তিন মিনিট চার্জ ১৩ শতাংশ ব্যাটারি লাইফ দিতে সক্ষম। মাত্র তিন মিনিট চার্জের পর রিয়েলমি ৭ প্রো দিয়ে তিন রাউন্ড পাবজি (১ ঘণ্টা ২২ মিনিট) খেলা অথবা দুই ঘণ্টা ইনস্টাগ্রাম ব্রাউজিং বা আড়াই ঘণ্টা ইউটিউবে ভিডিও দেখা এবং চারদিনের স্ট্যান্ডবাই সময় সম্ভব!

রিয়েলমি ৭ প্রো’তে রয়েছে ৬৪ মেগা পিক্সেলের সনি সেন্সরসহ কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা, স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি প্রসেসর, ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরসহ সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। একইসঙ্গে মিলবে ৩২ মেগাপিক্সেল ইন ডিসপ্লে আলট্রা ক্লিয়ার সেলফি ক্যামেরা। এছাড়া আছে ৮ জিবি র‍্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। এর দাম ২৭ হাজার ৯৯০ টাকা। একই মূল্যে বাজারের অন্যান্য ব্র্যান্ড ফোনের আউটলুক এবং ফিচারের দিক থেকে অনেক পিছিয়ে আছে। তাই স্টাইল পারফরমেন্স ও দামের সমন্বয়ে রিয়েলমি ৭ প্রো হলো ২০২০ সালের ফ্ল্যাগশিপ কিলার স্মার্টফোন।

সর্বাধুনিক ফিচার ও পারফরমেন্সে তরুণবান্ধব স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি দ্রুততার সঙ্গে ব্যবহারকারীদের পছন্দের শীর্ষে উঠে এসেছে। সর্বোপরি ‘ডেয়ার টু লিপ’ স্পিরিটে তরুণ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী সর্বাধুনিক প্রযুক্তির নতুন সব ফোন আসন্ন দিনগুলোতে বাজারে আনতে বদ্ধপরিকর রিয়েলমি।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x