ঢাকা বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬
২৭ °সে


মিসবাহর কৌশলের বিরোধী রমিজ রাজা

মিসবাহর কৌশলের বিরোধী রমিজ রাজা
পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ উল হক। ফাইল ছবি

কোচ-নির্বাচক হিসেবে শুরুতেই সমালোচনার মুখে পড়েছেন পাকিস্তানের মিসবাহ উল হক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিতব্য সিরিজকে সামনে রেখে তিনি যে প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন সেটা দেখে অনেকেই নাক সিটকাচ্ছেন। সাবেক ক্রিকেটার রমিজ রাজা তো বলেই দিয়েছেন যে এটা ‘গা বাঁচানো’ একটা স্কোয়াড হয়েছে।

মিসবাহ তার সম্ভাব্য দলে নতুন করে অন্তর্ভুক্ত করেছেন ব্যাটসম্যান আহমেদ শেহজাদ ও উমর আকমলকে। আগের নির্বাচক কমিটি ও দলীয় ব্যবস্থাপনার বিবেচনায় এই দু’জনেই বেশ কিছুদিন যাবত্ জাতীয় দলের বাইরে ছিলেন। এমনকি বিশ্বকাপের দলেও তারা ছিলেন না।

২০ জনের প্রাথমিক দলে জায়গা হয়নি দুই অভিজ্ঞ খেলোয়াড় মোহাম্মদ হাফিজ ও শোয়েব মালিকের। যদিও আগামী ১২ অক্টোবর পর্যন্ত ক্যারিবিয়ন প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) খেলার জন্য এই দু’জন আগেই পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) অনুমতি নিয়েছিল। দেশে না থাকার কারণে তাদেরকে দলে ডাকেননি মিসবাহ।

ক্রিকেট ছেড়ে এখন ধারাভাষ্যে মন দেওয়া রমিজ রাজা মনে করছেন মিসবাহ নিজের দল নিয়ে কোনো রকম পরিকল্পনা বা নতুন কৌশল অবলম্বন করতে চান না। তিনি বলেন, ‘এটা খুবই হতাশাজনক যে, মিসবাহ’র দলে নতুন তেমন কেউ নেই। মানে সে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষায় আগ্রহী না। যে দলটা খেলতে আসবে সেটা তো দ্বিতীয় শ্রেণির একটা শ্রীলঙ্কা দল। ওদের বিপক্ষে চাইলে কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করাই যেত।’

প্রধান কোচ ও প্রধান নির্বাচক হিসেবেই এটাই পাকিস্তানের হয়ে মিসবাহ’র প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট। রমিজ রাজা মনে করছেন, এজন্যই নিজেকে নিরাপদ রাখতে কোনো ঝুঁকি নিচ্ছেন না মিসবাহ। তিনি বলেন, ‘এটা অবশ্য অনুমিতই ছিল। এটা মিসবাহ’র প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট। ও সেফই খেলতে চাইবে। যে খেলোয়াড়দের ওপর আগে থেকেই আস্থা ছিল, তারেই ঘুরে ফিরে খেলানো হবে।’

আরো পড়ুন : একদিনে ৪ বার ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি ক্যানসার জয়ী নারীর

৫৭ বছর বয়সি রমিজ মনে করছেন, চাইলে ক্যাম্পেও কয়েকজন তরুণকে সুযোগ দেওয়া যেত। বললেন, ‘কয়েকজন তরুণকে অন্তত ক্যাম্পে রাখা যেত। তাতে করে, পাকিস্তানের ভবিষ্যত্টা কেমন বোঝা যেত। সেটা না করে এমন ক্রিকেটারদের ডাকা হয়েছে যারা গেল ১০ বছর ধরে পাকিস্তান ক্রিকেট দলে আছেন। তাদের যোগ্যতা নিয়ে আমার কোনো সংশয় নেই, তবে একই সাথে তাদের সীমাবদ্ধতাগুলোও কারো অজানা নয়।’

২৭ সেপ্টেম্বর থেকে করাচিতে শুরু হওয়ার কথা তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। এরপর লাহোরে পাঁচ অক্টোবর থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। নিরাপত্তার ইস্যুতে শ্রীলঙ্কা দল থেকে শীর্ষ ১০ খেলোয়াড় নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। এর মধ্যে দুই ফরম্যাটের অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা ও দ্বিমুথ করুনারত্নেও রয়েছেন।

ইত্তেফাক/ইউবি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৩ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন