ঢাকা সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬
২৭ °সে


দরিদ্র মানুষের জন্য শিবচরে এক ব্যবসায়ীর মানবিক উদ্যোগ

দরিদ্র মানুষের জন্য শিবচরে এক ব্যবসায়ীর মানবিক উদ্যোগ
যাদের কেনার সামর্থ নেই তাদের জন্য বিনামূল্যে পোশাক পাওয়া যায় এই দোকানে। ছবি: ইত্তেফাক

মাদারীপুরের শিবচরে দরিদ্র মানুষের জন্য চমৎকার এক মানবিক উদ্যোগ নিয়েছেন এক ব্যবসায়ী। যাদের কেনার সামর্থ নেই তাদের জন্য তিনি বিনামূল্যে পোশাক দিচ্ছেন। ওই ব্যবসায়ীর নাম তানজিল আহমেদ খান। ঈদ উপলক্ষে শিবচরের পৌর বাজারের ইলিয়াস তালুকদার মার্কেটে অবস্থিত কিডস ক্লাব নামক প্রতিষ্ঠানের মালিক তিনি।

এ খবর সারা শিবচরে ছড়িয়ে পড়লে হতদরিদ্র লোকজন তার দোকানে এসে ভিড় জমায়। কিছু লোক ভিড় জমাচ্ছেন ভালো উদ্যোগকে স্বাগত জানানোর জন্য।

নাহিদ আক্তার নামে এক ক্রেতা বলেন, ‘বিভিন্ন মার্কেটে কেনাকাটা করার পর বাচ্চার জন্য জামা কাপড় কিনতে পৌর বাজারের ইলিয়াস তালুকদার মার্কেটে আসি। এসে দেখি একটি সাইনবোর্ড। তাতে লেখা আছে কেনার সার্মথ্য যাদের নেই তাদের জন্য বিনামূল্যে। এই লেখাটা দেখে আমি অবাক হয়ে কিছুক্ষণ তাকিয়ে রইলাম। তারপর ভিতরে ঢুকে দেখি তানজিল আহমেদ খান নামক এক ব্যবসায়ী ব্যবসার পাশাপাশি যাদের কেনার সামর্থ্য নেই সেই শিশুদের হাতে বিনামুল্যে জামা কাপড়, জুতা-স্যান্ডেলসহ বিভিন্ন সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন। এটা ভাল উদ্যোগ।’

করিম নামে এক ভিক্ষুক বলেন, ‘ইলিয়াস তালুকদার মার্কেটে এসেছিলাম ভিক্ষা করার জন্য। এসে দেখি এই মার্কেটের একজন ব্যবসায়ী ফ্রিতে জামা-কাপড় দেন। তাই এই দোকানে আইসা আমার ছেলের জন্য টাকা ছাড়াই পছন্দমতো নতুন জামা, প্যান্ট লইলাম। আমি আল্লাহর কাছে ঐ ব্যবসায়ীর জন্য দোয়া করবো।’

আরও পড়ুন: ছাত্রলীগ সভাপতির চাঁদাবাজির প্রতিবাদে দলিল লেখকদের কর্মবিরতি

কিডস ক্লাবের মালিক তানজিল আহমেদ খান বলেন, ‘আমি গত দুই বছর ধরে গরীব অসহায় দুঃস্থ শিশুদের বিনামূল্যে পোশাক, জুতা-স্যান্ডেলসহ বিভিন্ন সামগ্রী দিই। যাদের কেনার সার্মথ্য নেই তারা দোকানে এসে এগুলো নিয়ে যায়। এতে নিজের কাছে খুব শান্তি লাগে। দেশের বড় বড় ব্যবসায়ীরা আমার মতো এভাবে যদি তাদের দোকানের কিছু পোশাক দরিদ্র শিশুদের জন্য বরাদ্দ রাখতো তাহলে দেশের সকল দরিদ্র শিশুরা ঈদে নতুন পোশাক পেতো।’

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন