যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: যা বলছে ময়নাতদন্ত

যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা: যা বলছে ময়নাতদন্ত
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের হাতে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক আফ্রিকান-আমেরিকান ব্যক্তি নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ওই ঘটনার একটি ব্যক্তিগত ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, অক্সিজেনের অভাবে অর্থাৎ শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন ফ্লয়েড। খবর বিবিসির।

বিবিসি জানায়, ফ্লয়েডের মৃত্যু ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে চলছে লাগাতার বিক্ষোভ। তবে তার ব্যক্তিগত ময়না তদন্ত বলছে, শ্বাসকষ্ট মারা গেছেন তিনি।

ফ্লয়েডের পরিবারের ভাড়া করা একজন মেডিকেল অফিসারের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, মিনিয়াপলিস ওই পুলিশ অফিসারদের

ফ্লয়েডের ঘাড়ে এবং পিঠে প্রচন্ডচাপ প্রয়োগ করলে তার মৃত্যু হয়।

দেশটির ওই মেডিকেল পরীক্ষকের দেওয়া রিপোর্ট সরকারী প্রাথমিক ময়নাতদন্তের রিপোর্ট থেকে আলাদা। সেই তদন্তে আঘাতজনিত অ্যাসফিক্সিয়া বা শ্বাসরোধের প্রমাণ পাওয়া যায় নি।

আরও পড়ুন: ঘোড়ার পিঠে প্রাসাদ উদ্যানে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ

গত ২৫ মে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের বড় শহর মিনিয়াপলিসে পুলিশের হাতে ফ্লয়েডের মৃত্যু হয়। এরপরই শুরু হয় বিক্ষোভ। পুরো দেশে ছড়িয়ে পড়ে এই বিক্ষোভ। তবে ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনায় চার পুলিশ কর্মকর্তাকে তাৎক্ষণিকভাবে বরখাস্ত করেছে মিনিয়াপলিস পুলিশ বিভাগ। এদের মধ্যে ফ্লয়েডকে হত্যার দায়ে ৪৪ বছর বয়সী দেরেককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/আরআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত