জরুরি অবস্থা উপেক্ষা করে থাইল্যান্ডে বিক্ষোভ

জরুরি অবস্থা উপেক্ষা করে থাইল্যান্ডে বিক্ষোভ
থাইল্যান্ডের সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা গতকাল ব্যাংকক সমাবেশে আন্দোলনের প্রতি সংহতি প্রকাশ করতে মোবাইলের ফ্ল্যাশলাইট প্রজ্বলন করে —এএফপি

থাইল্যান্ডে জরুরি অবস্থা উপেক্ষা করে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার তারা রাস্তায় নেমে আটক নেতাদের মুক্তির দাবিতে স্লোগান দেন। এছাড়া ছাত্রআন্দোলনের প্রতীক হয়ে ওঠা ‘তিন আঙুল স্যালুট’ প্রদর্শন করেছে। খবর রয়টার্স ও বিবিসির

পুলিশ জানিয়েছে, বেআইনিভাবে বহু মানুষকে ব্যাংককে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সেখানে বিশাল সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। সরকারের দাবি, শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখতে জরুরি অবস্থা জারির বিকল্প ছিল না। বিক্ষোভকারীরা রাজার ক্ষমতা খর্ব ও প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে থাইল্যান্ডে গত কয়েক দিন ধরে থাইল্যান্ডে বিক্ষোভ চলছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে গতকাল ভোর থেকে জরুরি অবস্থা জারি করে থাই সরকার।

জরুরি অবস্থা কার্যকর হওয়ার পর পরই দাঙ্গা পুলিশ প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুত চান-ওঁচার কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান নেওয়া বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়। সেখান থেকে অন্তত ২০ জন বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে কয়েকজন নেতাও রয়েছেন। বিক্ষোভকারীরা রাজকীয় মোটর শোভাযাত্রাকে চ্যালেঞ্জ জানানো ও ‘দ্য হাঙ্গার গেমস’ চলচ্চিত্র থেকে নেওয়া ‘তিন আঙুলের’ অভিবাদন প্রদর্শন করেছেন, যা দেশটিতে অতি শ্রদ্ধেয় রাজার বিরুদ্ধে নজিরবিহীন অবাধ্যতা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

সরকারি মুখপাত্র বলেন, জরুরি পদক্ষেপ অনুসারে চার জনের বেশি লোক জড়ো হতে পারবেন না। বৈদ্যুতিক যোগাযোগের যন্ত্রপাতি, ডেটা ও অস্ত্র সরকার জব্দ করে নিয়ে যেতে পারবে। এক বিবৃতিতে বলা হয়, জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি হিসেবে দেখা দেয়, এমন কোনো খবর বৈদ্যুতিক মাধ্যমে প্রচার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বুধবার হাজার হাজার বিক্ষোভকারী ব্যাংককের গণতন্ত্র স্মৃতিসৌধে জড়ো হয়েছিলেন।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত