ঢাকা শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৭
১৪ °সে

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ, শ্রীলঙ্কায় কারফিউ জারি

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বন্ধ, শ্রীলঙ্কায় কারফিউ জারি
হামলায় বিধ্বস্ত চার্চের সামনে নিরাপত্তাকর্মীরা। ছবি: সংগৃহীত

শ্রীলঙ্কায় সিরিজ বোমা হামলার পর দেশজুড়ে কারফিউ জারি করেছে দেশটির সরকার। কারফিউ জারির পাশাপাশি সবরকম অপ্রীতিকর ও অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে দেশটির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। দেশটিতে সিরিজ বোমা হামলার পর আন্তর্জাতক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের দপ্তরের বরাত দিয়ে দেশটির একটি সংবাদ মাধ্যম নিউজ ফার্স্ট ডট লংকা এক প্রতিবেদনে জানায়, রবিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত পুরো দেশে কারফিউ জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি সোম ও মঙ্গলবার সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ বিষয়ে দেশটির প্রতিরক্ষা প্রতিমন্ত্রী রুভান বিজয়বর্ধনে দুপুরে কলম্বোতে সাংবাদিকদের জানান, 'পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত কারফিউ জারির এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে'।

এর আগে, দেশটির স্থানীয় সময় রবিবার সকাল ৮ টা ৪৫ নাগাদ খ্রিস্টানদের ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে উদযাপনকালে কোচকিকাদে, কাতুয়াপিটিয়া ও বাট্টিকালোয়া নামক স্থানের তিনটি গির্জায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। প্রায় একই সময়ে দেশটির রাজধানীর অভিজাত তিনটি হোটেল সাংগ্রি লা, দ্য কিন্নামোন এবং কিংসবারিতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এই সিরিজ বোমা হামলার প্রায় ঘণ্টা খানেক পর আবারও কলম্বো ও এর পার্শ্ববর্তী একটি শহরে আরও দুইটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটে।

আরও পড়ুন: শ্রীলঙ্কায় হামলায় ব্রিটিশ, আমেরিকান, ডাচ ও জাপানিসহ ৩৫ বিদেশি নিহত

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার তিনটি চার্চ, তিনটি অভিজাত হোটেল, কলম্বো এবং এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলায় ৩৫ বিদেশি নাগরিকসহ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৯ জনে দাঁড়িয়েছে। হামলায় আহত হয়েছে আরও চার শতাধিক। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৪ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন