কংগ্রেসকে ঢেলে সাজাতে চান রাহুল গান্ধি

কংগ্রেসকে ঢেলে সাজাতে চান রাহুল গান্ধি
কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী। ছবি: সংগৃহীত।

লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবির দায় নিয়ে কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগের প্রস্তাব দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। প্রায় এক মাসের বেশি সময় আগে কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানান তিনি। কিন্তু তার প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে প্রত্যাখ্যাত হয়। তবে এখন পর্যন্ত পদত্যাগের ব্যাপারে অনড় রয়েছেন রাহুল। একইসঙ্গে কংগ্রেসকে সম্পূর্ণভাবে ঢেলে সাজাতে চান তিনি। কিন্তু সমস্যা হলো—দলের অনেক নেতা তাদের ব্যর্থতা স্বীকার করতে চাইছেন না এবং পদত্যাগেও আগ্রহী নন। এ বিষয়টি নিয়ে খুবই মনঃক্ষুণ্ন রাহুল গান্ধী।

তবে দলের কিছু বর্ষীয়ান নেতা এখন রাহুলের পদত্যাগের সম্ভাবনাকে মেনে নিতে শুরু করেছেন। সূত্র বলছে, বিভিন্ন পদে থাকা দলের অনেক জ্যেষ্ঠ নেতাকে এমনকি ওয়ার্কিং কমিটির সদস্যকে পদত্যাগ করতে বলা হতে পারে।

গত বৃহস্পতিবার কংগ্রেস নেতা বিবেক তানখা দলীয় পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। মধ্যপ্রদেশের জাবালপুর আসন থেকে দ্বিতীয়বারের মতো লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হতে পারেননি তিনি। পদত্যাগের পর তিনি বলেন, এ ধরনের ব্যর্থতা দল বেশি দিন বয়ে বেড়াতে পারে না। দলকে পুনর্জীবিত করতে ব্যাপকভাবে পরিবর্তন আনার জন্য রাহুল গান্ধীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে তিনি দলের বিভিন্ন পদে থাকা নেতাদের পদত্যাগ করতে অনুরোধ করেছেন। তানখার এই খোলা অনুরোধের পর শুক্রবার কংগ্রেসের বেশ কয়েকজন নেতা ও মহিলা কংগ্রেসের নেত্রী সরে দাঁড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছেন। গত কয়েক সপ্তাহে দলটি রাজ্যভিত্তিক কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বেশ কয়েকটি কমিটিও বিলুপ্ত করেছে।

সূত্র আরো বলছে, যেসব নেতা রাহুল গান্ধীকে পদে থাকার জন্য বলেছেন তাদের প্রতি ক্ষুব্ধ রাহুল গান্ধী। তিনি চান, দলের বর্ষীয়ান নেতারা সমানভাবে নির্বাচনে ব্যর্থতার দায় স্বীকার করুক।

সূত্র বলছে, চলতি বছরের শেষ দিকে ঝাড়খণ্ড, মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানা বিধানসভার নির্বাচন হবে। এই নির্বাচনের আগে অনেক কংগ্রেস নেতা বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। তবে রাহুলের বক্তব্য, যারা যেতে চান তারা যাবেন। তবে তাদের জন্য কংগ্রেসের দরজা চিরতরে বন্ধ হয়ে যাবে।

ইত্তেফাক/এসআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত