ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬
৩০ °সে


আশ্রয়কেন্দ্রে ধর্ষিত আট কিশোরীকে পরিবারে ফিরিয়ে দিতে উচ্চআদালতের নির্দেশ

আশ্রয়কেন্দ্রে ধর্ষিত আট কিশোরীকে পরিবারে ফিরিয়ে দিতে উচ্চআদালতের নির্দেশ
ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ছবি: সংগৃহীত

বিহারের মুজাফফরপুর আশ্রয়কেন্দ্রে ধর্ষণের শিকার আট কিশোরীকে তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য রাজ্যসরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া এই রায়ে মেয়েগুলোকে আর্থিক, চিকিৎসা ও শিক্ষাখাতে সহায়তা বরাদ্দের নির্দেশ দেওয়া হয় সরকারকে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

বিচারপতি এনভি রাভানা পরিচালিত উচ্চ আদালতের একটি বেঞ্চে মামলাটির শুনানি চলে। 'বিহারের মুজফফরপুরে ওই আশ্রয়কেন্দ্রে বছরের পর বছর ধরে অন্তত ৪৪ জন মেয়ে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।' গত বছরের মে মাসে টাটা সোশ্যাল সায়েন্স ইনস্টিটিউট (টিআইএসএস) এর পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশের পরই এই মারাত্মক অভিযোগগুলি জনসম্মুখে আসে। পরে পুরো ঘটনায় সিবিআই তদন্ত শুরু হয়।

জুলাইতে টিআইএসএস এর প্রতি নির্যাতিত মেয়েগুলোকে পুনর্বাসনকেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দেয় সুপ্রীম কোর্ট। একইসঙ্গে তাদের পরিবারকে খুঁজে বের করে সেখানে তারা ফিরতে পারবে কি না তাও নিশ্চিত করতে বলে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার টিআইএসএস আটজন মেয়েকে তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য একটি প্রতিবেদন জমা দেয়। পরে সর্বোচ্চ আদালত এই আদেশ দেয়।

আরও পড়ুন: বহিরাগত ঠেকাতে ট্রাম্পকে সুপ্রিম কোর্টের সমর্থন

উল্লেখ্য, এই মামলার প্রধান আসামি ব্রজেশ ঠাকুরের বিরুদ্ধে গত বছরের ডিসেম্বরে সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন(সিবিআই) একটি চার্জশিট দাখিল করে। অভিযোগপত্রে বলা হয়, সাংবাদিক ও সমাজকর্মী ব্রজেশ ঠাকুর প্রায়শই আশ্রয়কন্দ্রের মেয়েদের অশ্লীল গানে নাচার জন্য এবং তার বিশেষ মেহমানদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে বাধ্য করতো। ব্রজেশ ঠাকুর বর্তমানে পাঞ্জাবের একটি উচ্চ-নিরাপত্তাবেষ্টিত কারাগারে বন্দী।

ইত্তেফাক/মিশু/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন