শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ভারতে ২৫ বছর গরুর সেবা করে পদ্মশ্রী পেলেন বিদেশিনী

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:০৫

ভারতে ৩-৪ বছর ধরে বারবার শিরোনামে এসেছে গোরক্ষা, গোহত্যার মতো বিষয়গুলো। এমনকি গোহত্যার অভিযোগে গণপিটুনিতে মেরে ফেলার ঘটনাও ঘটেছে। গরুর নিরাপত্তা, আশ্রয়ের জন্য লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। তবে এসবের অনেক আগে থেকেই সবার চোখের আড়ালে গরুদের সেবা-যত্ন করছেন এক জার্মান মহিলা। তাঁকেই এবার বেছে নেওয়া হয়েছে পদ্মশ্রী পুরষ্কারের জন্য।

সম্প্রতি ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে ঘোষণা হওয়া পদ্মশ্রী পুরস্কারের তালিকায় নাম রয়েছে এই জার্মান মহিলার। উত্তরপ্রদেশের এক প্রত্যন্ত অঞ্চলে থাকেন তিনি।

স্থানীয়রা তাঁকে সুদেবী মাতাজি নামে চেনেন। তাঁর আসল নাম ফ্রেডেরিকে ইরিনা ব্রুনিং। অন্তত ১৮০০ গবাদিপশুর লালন-পালন করেন তিনি। গত ২৫ বছর ধরে এই কাজ করে আসছেন।

আরও পড়ুনঃ দশটা মন্ত্রীর সমান কাজ করবো: নাসিম

জানা গেছে, প্রথমে জার্মানি থেকে ভারতের মথুরায় এসেছিলেন ইরিনা। এখানে এসে গরুদের দেখে ভালোবেসে ফেলেন তিনি। গরুর প্রেমে ভারতেই থেকে যান।

বর্তমানে ৬১ বছর বয়স তাঁর। তাঁর অধীনে কাজ করনে ৬০ জন। তাঁদের বেতন দিতে মাসে ৩৫ লক্ষ টাকা খরচ হয়। এদের সবার কাজ অবলা গরুদের সেবা করা।

উত্তরপ্রদেশে সুরভী গৌশালা নিকেতন নামে একটি জায়গা তৈরি করেছেন তিনি। সেখানেই গোরুদের উদ্ধার করে নিয়ে এসে আশ্রয় দেন ইরিনা।

ইত্তেফাক/টিএস