সোমবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ৩ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

চবিতে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে ভর্তিচ্ছু দুই শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ

আপডেট : ৩০ অক্টোবর ২০২১, ০৪:০৩

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) দুই ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে মারধর ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া দৈনিক ইত্তেফাককে বলেন, আমি ঘটনাটি শুনেছি। ভুক্তভোগী দুই শিক্ষার্থী লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। আমরা বিষয়টা খতিয়ে দেখছি। এটা সত্য হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) দুপুর পৌনে ২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেল স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগপত্রে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। মারধরে আহতরা হলেন- চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার আরাফাত হোসেন ও রাউজান উপজেলার আখতার হোসেন। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. আবু তৈয়ব দৈনিক ইত্তেফাককে বলেন, মারধরের শিকার দুজন শিক্ষার্থী প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। ভুক্তভোগী এক ছাত্রের বড় ভাই বলেন, পরীক্ষা দিয়ে স্টেশন এলাকায় আসলে কয়েকজন ছেলে আমার ভাই ও তার বন্ধুদের ডাক দেন। চলে আসতে চাইলে তাদের গালাগালি ও মারধর করেন। তাদের গায়ে ছাত্রলীগের বগি ভিত্তিক গ্রুপ সিক্সটি নাইনের টিশার্ট ছিলো। আমরা প্রক্টর অফিসে অভিযোগ দিয়েছি।

অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় রেল স্টেশনে তাদেরকে ৭-৮ জন র‍্যাগ দেন। এরপর তারা অসুস্থতার জন্য চলে আসতে চাইলে গালাগালি করেন এবং অপহরণ করে শাহজালাল হল গেটে নিয়ে যান। এসময় তাদের থেকে একটি মানিব্যাগ, একটি স্বর্ণের আংটি ও একটি মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নেন তারা। পরে পরিচিত এক বড় ভাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি তাদের চবি মেডিকেলে নিয়ে যান।

অভিযুক্তরা হলেন, মনোবিজ্ঞান বিভাগের ইবনুল, ব্যাংকিং এন্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের জুয়েল, ইন্সটিটিউট অব এডুকেশন এন্ড রিসার্চের রনি এবং জাবেদ। প্রত্যেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইবনুল দৈনিক ইত্তেফাককে বলেন, আমি সেখানে ছিলাম না। আমি ঢাকায়। এমনটা শুনেছি। তবে আমাদের ছেলেরাই ছিল ওখানে।

অভিযুক্ত সবাই শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর নেতৃত্বাধীন উপ-গ্রুপ সিক্সটি নাইনের কর্মী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু বলেন, শুনেছি কী একটা ঝামেলা হয়েছে। তবে কাদের সঙ্গে কার ঝামেলা তা এখনো জানতে পারিনি। এপ্লিকেন্টের সঙ্গে তো ঝামেলা হওয়ার কথা না কারো।

ইত্তেফাক/এমআর

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ছাত্রলীগের হামলা: শাবিপ্রবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা

যাত্রা শুরু করলো আইএসইউ ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাব 

নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে ভর্তি চলছে

বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শীতের আমেজ 

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

নবীনদের বরণ করলো ইবির বুনন

২০ দফা দাবি পূরণে লিখিত অঙ্গীকার চান নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

নোবিপ্রবিতে ভর্তির আবেদনের সময় ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়লো

কেন কুয়েটের ৯ শিক্ষার্থী বহিষ্কার