বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

স্ত্রীকে হত্যার পর পুলিশকে ফোন: ওসি

আপডেট : ২১ নভেম্বর ২০২১, ১৫:১৪

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল ‍উপজেলায় পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী মিনারা (২২) নামে এক গৃহবধূ খুন হয়েছেন। শনিবার (২০ নভেম্বর) দিবাগত রাতে উপজেলার ভাবন দত্ত গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্ত্রীকে হত্যার পর নিজেই ঘাটাইল থানা পুলিশকে ফোন করে বলেন ‘আমি আমার স্ত্রীকে হত্যা করেছি, আমাকে ধরে নিয়ে যান।’

ঘাটাইল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আজাহারুল ইসলাম সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে স্বামী আমিনুল ইসলামকে (২৮) আটক করে। সে পেশায় অটোচালক।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, ভাবন দত্ত গ্রামের শামসুল হকের ছেলে মো. আমিনুল ইসলাম ২-৩ বছর আগে জামুরিয়া ইউনিয়নের মমরেজ গলগন্ডা গ্রামের মোন্নাফ মিয়ার মেয়ে মিনারাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। পারিবারিক কলহের জের ধরে শনিবার দিবাগত রাত্রে স্বামী তার স্ত্রীকে গলাটিপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন। 

ঘাটাইল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আজাহারুল ইসলাম সরকার বলেন, ‘স্ত্রীকে হত্যার পর আমিনুল ইসলাম নিজেই থানায় ফোন করে জানায় আমি আমার স্ত্রীকে হত্যা করেছি। আপনারা এসে আমাকে নিয়ে যান। পরে আমিসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতক আমিনুলকে আটক করি। সে প্রাথমিকভাবে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল পাঠানো হয়েছে।’

ইত্তেফাক/এএএম

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

‘ঘুষ না পেয়ে স্থাপনা উচ্ছেদ’

প্রথম স্বামীর জমানো টাকা আনতে গিয়ে দ্বিতীয় স্বামীর হাতে খুন!

মেয়েকে গুমের মামলায় বাবার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

কাদের মির্জার বিরুদ্ধে ৮ চেয়ারম্যান প্রার্থীর অভিযোগ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

রাণীর পর গিনেসে এবার ‘চারু’র নাম

বগুড়ায় বাসচাপায় নিহত ৫

নীলফামারীতে ট্রেন-অটো সংঘর্ষ, ৪ শ্রমিকের মৃত্যু

কাতারী জামাই: ৭ জেলায় ৭ বিয়ে, হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা!