রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

কেরানীগঞ্জে নির্বাচনি সহিংসতায় ৩ দিনে আহত ১৫ 

আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২১, ২৩:১০

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ ও কেরানীগঞ্জ মডেল থানা এলাকার শুভাঢ্যা ইউনিয়ন, হযরতপুর ও কালিন্দী ইউনিয়ন বুধবার, বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার তিনদিনের চেয়ারম্যান ও মেম্বার সমর্থকদের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও মারপিটের ঘটনায় ১৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ১০ জনকে স্থানী হাসপাতাল ও মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করেছেন কেরানীগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবু ছালাম। 

শুভাঢ্যা ইউনিয়নের আট নাম্বার ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী হেদুজ্জামান (ফুটবল প্রতীক) জানায়, শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) বিকালে মিছিল বের করলে তার সমর্থকদের ওপর হামলা চালায় আলমগীর হোসেন (আপেল মার্কা) এর  সমর্থক শাওন সহ ৩০ থেকে ৩৫ জনের একটি দল। এসময় তার ১০ জন কর্মী আহত হয়। এ বিষয়ে রাতে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন প্রার্থীর ছোট ভাই সাইদুজ্জামান। 

পুলিশ জানায় শুক্রবার ইকুরিয়া বেপারী পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটেছে। অন্যদিকে বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে চুনকুটিয়া এলাকায় নির্বাচনি প্রতিহিংসায় কতিপয় সন্ত্রাসীরা যুবলীগ কর্মী রাজন, জহিরুল ও দবিরকে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে জখম করেছে। রাতে আহতদের মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় হাযরতপুর মিছিলে হামলার ঘটনা ঘটেছে। 

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) রাতে কালিন্দী ইউনিয়নের আট নাম্বার ওয়ার্ড অহেদুজ্জামান আসাদ (ফুটবল প্রতীক) এর শালা হাসান মাহমুদ মুকুল কে প্রতিপক্ষ সপন চৌধুরীর (মোরগ প্রতীক) লোকজন নিয়ে মুকুলকে মারপিট করে আহত করে এবং হত্যা করার হুমকি দেয়। এব্যাপারে মুকুল বৃহস্পতিবার রাতে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে মডেল থানায় একটি জিডি দায়ের করেন। 

এ বিষয়ে ওসি আবু ছালাম বলেন, নির্বাচনে ছোটখাটো ঘটনা ঘটতে পারে। তবে আমাদের পুলিশ শতর্ক অবস্থায় আছে।

ইত্তেফাক/ইআ