শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮
দৈনিক ইত্তেফাক

১০ বছর অন্যকে দিয়ে গাড়ি চালিয়ে বরখাস্ত সাইফুল

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৯:২৭

নিজে চালানোর কথা থাকলেও দীর্ঘ ১০ বছর ধরে অন্যকে দিয়ে চালাচ্ছেন সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ি, এমন অভিযোগে গাড়িচালক (ভারী) মো. সাইফুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় ডিএসসিসি।

এ বিষয়ে ডিএসসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের জানান, ১০ বছর আগে গাড়িচালক হিসেবে ডিএসসিসিতে নিয়োগপ্রাপ্ত হলেও একদিনও গাড়ি চালাননি সাইফুল ইসলাম। তার নামে বরাদ্দ গাড়িটি চালাচ্ছিলেন ইউসুফ নামে আরেক ব্যক্তি। এ অভিযোগে ডিএসসিসির আইন অনুযায়ী সাইফুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এদিকে নয় দফা দাবির পরিপ্রেক্ষিতে গত কয়েকদিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের নয় দফা দাবি হচ্ছে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈমসহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সব শিক্ষার্থীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সব যাত্রী ও পরিবহণ শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন নিশ্চিত করতে হবে। সড়ক নৌ ও রেলপথে শিক্ষার্থীদের হাফ পাস নিশ্চিত করে প্রজ্ঞাপন জারি করতে হবে। বৈধ-অবৈধ যানবাহন চালকদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বৈধতার আওতায় আনতে হবে। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষ-বিআরটিএ’র সব কার্যক্রমে নজরদারি ও জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে। সারা দেশে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা স্বয়ংক্রিয় আধুনিকায়ন এবং পরিকল্পিত নগরায়ন সুনিশ্চিত করতে হবে। গণপরিবহণে নারীর প্রতি যৌন হয়রানি ও সহিংসতা বন্ধ করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। পরিকল্পিত বাস স্টপেজ ও পার্কিং স্পেস নির্মাণ এবং এর যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। 

সর্বশেষ গত ২০ নভেম্বর বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের এক শিক্ষার্থী শনির আখড়া থেকে কলেজে আসার পথে অর্ধেক ভাড়া দিতে চাইলে বাসের হেলপার তার সঙ্গে অসদাচরণ করেন। পরের দিন রবিবার বকশী বাজার এলাকা অবরোধ করে বিক্ষোভ করে বদরুন্নেসা কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের অন্য শিক্ষার্থীরাও।

পরে শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে রাজধানীজুড়ে। এর মধ্যেই গত বুধবার গুলিস্তান এলাকায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) একটি ময়লার গাড়ির ধাক্কায় হত্যার শিকার হয় নটর ডেম কলেজের এক শিক্ষার্থী। এরপর শিক্ষার্থী ‘হাফ পাসে’র পাশাপাশি নিরাপদ সড়কের দাবিতেও আন্দোলন শুরু করে। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলছেন, ২০১৮ সালে টানা কয়েকদিন সড়ক অবরোধের পর তাদের দাবি-দাওয়া মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলে তারা আন্দোলন স্থগিত করে। এবারে আন্দোলনে নেমে শিক্ষার্থীরা বলছে, বড়রা আমাদের অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। আমরা তাদের ওপর আস্থা রেখে রাজপথ ছেড়েছিলাম। বড়রা বলুন, আপনারা কি আপনাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি রেখেছেন? 

 

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

সার্জেন্ট টাকা চাননি, ক্ষমা চেয়েছেন সেই বিদেশি

সিএনজিকে বাসের ধাক্কা, এক পরিবারের ৩ সদস্য নিহত

বাস থেকে ফেলে যাত্রী হত্যা: ২ জনকে আটক

চিরনিদ্রায় শায়িত কাজী আনোয়ার হোসেন

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ওয়ারীতে বাস থেকে ফেলে যাত্রীকে হত্যার অভিযোগ

প্রথমবার পিএসসি কোর্স সম্পন্ন করলেন ৩ পুলিশ কর্মকর্তা 

সামরিক বাহিনী কমান্ড ও স্টাফ কলেজে গ্র্যাজুয়েশন সনদ বিতরণ অনুষ্ঠিত

মায়ের কবরেই সমাহিত হবেন কাজী আনোয়ার হোসেন